করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ০ ◈ আজকে মৃত্যু : ০ ◈ মোট সুস্থ্য : ৭২১,৪৩৫
প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

অভিনেত্রী শ্রীলেখার নাম্বার নিয়ে হুলুস্থুল

২ মে ২০২১, ৩:১৪:০৩

সাইবার ক্রাইম ডিপার্টমেন্টের দ্বারস্থ অভিনেতা শ্রীলেখা মিত্র। গত কয়েকদিন ধরে, সোশ্যাল মিডিয়ায় তারকা প্রার্থী এবং তারকা প্রচারকদের ফোন নম্বর ফাঁস করা হচ্ছিল। এবারে ফেসবুকে ফাঁস হলো বাম তারকা প্রচারক শ্রীলেখা মিত্রর ফোন নম্বর। শুধু তাই নয়, কুরুচিকর মন্তব্য করা হয়েছে অভিনেতার সম্পর্কে।

সুজন সেন নামের একজনের প্রশ্ন ‘ওর রেট টা কী চলছে…একজনের সঙ্গে কতো? দুজনের সঙ্গে কতো?’ কুরুচিকর এই পোস্টটির একটি স্ক্রিনশট নিয়ে নিজের প্রফাইলে পোস্ট করেন শ্রীলেখা। সঙ্গে ওই নেটিজেনের রাজনৈতিক অবস্থান নিয়েও কড়া সমালোচনা করেন শ্রীলেখা। জানান, সাইবার ক্রাইম দপ্তরকে এর মধ্যেই জানিয়েছেন তিনি।

সকালের ওই নেটিজেনের পোস্টে দেখা যায় লেখা রয়েছে, ‘ভাত চাই? শ্রীলেখা মাসিকে কল করুন’। তারপরেই অভিনেতার সম্পর্কে কুৎসিত কথাবার্তা লেখা হয়। শ্রীলেখা তাঁর পোস্টে ওই নেটিজেনকে ‘বোনপো’ সম্বোধন করেন। তারপর লেখেন, শুধু ভাত কেন? কভিড সংক্রান্ত যেকোনো প্রয়োজনে তিনি তাঁর সাধ্যমতো সাহায্য করবেন।

পোস্টের শেষে অভিনেতা জানতে চান, ওই নেটিজেন কোন দলের সমর্থক। শ্রীলেখা লেখেন, তুমি তৃণমূল না বিজেপি? মানে বোঝার চেষ্টা করছি কার দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে এই ভাষায় আমার সম্পর্কে লিখলে’? সেই পোস্টেই কলকাতা পুলিশ ও সাইবার সেলকে উল্লেখ করে পোস্টটির বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান শ্রীলেখা।

সপ্তম দফার নির্বাচনের দিন ইন্টারনেটে ফাঁস করা হয় তারকা প্রার্থীদের ফোন নম্বর। মুকুল রায়, শুভেন্দু অধিকারী, বৈশালী ডালমিয়া, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়দের মতো রাজনীতিবিদ থেকে শুরু করে রাজ চক্রবর্তী, কাঞ্চন মল্লিক, সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, সায়নী ঘোষ, জুন মালিয়া, কৌশানী মুখোপাধ্যায়, শ্রাবন্তী, যশ, রুদ্রনীলদের নম্বর।

সেদিনের পোস্টে লেখা ছিল, ‘করোনায় ভয় কিসের? আপনার পাশেই রয়েছেন মানুষের জন্য কাজ করতে চাওয়া নেতারা! মাস্ক, স্যানিটাইজার, রক্ত, অক্সিজেন, অ্যাম্বুল্যান্সের জন্য এখনই ফোন করুন…’। পরিচালক ইন্দ্রাশিস আচার্য তাঁর ওয়ালে পোস্টটি করার পর টলিউডে জোর বিতর্ক ওঠে। কাজটি বামেদের করা বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী পরিচালক রাজ চক্রবর্তী। তার উত্তরে শ্রীলেখা মিত্রও মন্তব্য করেন, ‘কেউ দুষ্টুমি করে কাজটি করেছে। তবে বুদ্ধিমত্তা আছে বলতে হবে’।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: