fbpx
প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

আগামীতে খালেদা জিয়া সরকার গঠন করবেন: খন্দকার মোশাররফ

২৪ জানুয়ারি ২০১৮, ১০:৪৫:৩৯

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, জিয়ার বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতেই খালেদা জিয়া এবং বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেবে। সেই নির্বাচনে জয়লাভ করে খালেদা জিয়া সরকার গঠন করবেন ও ২০১৮ সাল হবে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার বছর এবং জনগণের বছর। বুধবারজাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে জিয়া পরিষদ আয়োজিত ‘বহুদলীয় গণতন্ত্র: শহীদ জিয়াউর রহমান: আজকের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। খন্দকার মোশাররফ বলেন, আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। আর যদি আওয়ামী লীগ ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের পথে হাঁটেন তাহলে যারা ভোটের অধিকার হারিয়েছে সেই জনগণ রাস্তায় দাঁড়িয়ে তাদের বাধা দেবে। আন্দোলনের মাধ্যমের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করবে। এবং শহীদ জিয়ার বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেই খালেদা জিয়া এবং বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিয়ে জয় লাভ করবেন। তিনি বলেন, সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী সংসদে বলেছেন ‘নির্বাচনকালীন সরকার’। অথচ সংবিধানে ‘নির্বাচনকালীন সরকারের’ কথা নেই। প্রধানমন্ত্রী যদি আন্তরিক হয়ে থাকেন তাহলে তার সেই কথা ধরে বলি নির্বাচনকালীন সরকার হলে, সংবিধানে সংশোধনী আনতে হবে। আজকে সংসদে আওয়ামী লীগের দুই তৃতীয়াংশ সদস্য আছেন। সংসদে তারা চাইলে সংশোধনী আনতে পারেন। তবে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন ‘নির্বাচনকালীন সরকার’। কিন্তু সেখানে অবশ্যই উল্লেখ থাকতে হবে ‘নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার’। তিনি আরও বলেন, যদি এই সংবিধানে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার ব্যবস্থা সংশোধনীর মাধ্যমে এনে নির্বাচন হয়, তাহলে সংবিধান মোতাবকই নির্বাচন হবে। আর যদি তারা এটা না করে তাহলেও বাংলাদেশে উদাহরণ আছে সংবিধানের বাইরে অন্তর্র্বতীকালীন সরকারের মাধ্যমে নির্বাচন হয়েছিল। তিনি বলেন, আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেখ হাসিনা সরকারের অধীনে অনুষ্ঠিত হওয়ার পক্ষে কোনো যুক্তি তারা দেখাতে পারবে না। কেননা ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচন একটা তথাকথিত নির্বাচন- এটা প্রমাণিত। বিএনপির এ প্রবীণ নেতা বলেন, আমরা একটা শান্তিপূর্ণ সমাধান চাই। এজন্য আমাদের নেত্রী দেড় বছর আগে ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, নির্বাচনকালীন একটা নিরপেক্ষ সরকার হতে হবে। সংসদ ভেঙ্গে নির্বাচন দিতে হবে। ৫ জানুয়ারি জাতীয় থেকে শুরু করে স্থানীয় সরকারের নির্বাচনে জনগণের ভোটের প্রতি যে অনীহা অনাস্থা তা ফিরিয়ে আনার জন্য ক্ষমতা দিয়ে সেনাবাহিনীকে নির্দিষ্ট দিনের জন্য মোতায়েন করতে হবে। আমাদের নেত্রী আরও বলেছেন, নিরপেক্ষ সরকারের রূপরেখা তিনি (খালেদা জিয়া) দেবেন। আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি এবং উপযুক্ত সময়ে এই রূপরেখা দেয়া হবে।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: