fbpx
প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

আত্মীয় না হয়েও সৌদি হোটেলে নারী-পুরুষ একসঙ্গে থাকতে পারবেন!

৫ অক্টোবর ২০১৯, ১১:৩৬:২৭

সৌদি আরবকে তেল নির্ভর অর্থনীতি থেকে বের করে আনতে ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান ভিশন-২০৩০-এর ঘোষণা দিয়েছেন। এর প্রধান লক্ষ্যই হলো সর্ববৃহত্‍ দেশটির তেল নির্ভর অর্থনীতিকে বহুমুখী করা। এ জন্য পর্যটকদের ট্যুরিস্ট ভিসা দেওয়ার ঐতিহাসিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সৌদি আরব। সৌদি প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিদেশি পুরুষ ও নারীকে হোটেলের একই ঘরে থাকার অনুমতি দেওয়া হবে। এর জন্যে তাঁদের প্রমাণ করতে হবে না কোনও সম্পর্কের বন্ধন।

জানা গেছে, ট্যুরিস্ট ভিসা ভিসা পেতে হলে মেনে চলতে হবে কিছু শর্ত। শর্তগুলো প্রশাসনের পক্ষ থেকে স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। জনসমক্ষে অশ্লীলতা প্রশ্নে ১৯টি ‘অপরাধ’কে চিহ্নিত করেছে সৌদি প্রশাসন। যেগুলি করলে হবে কড়া জরিমানা। সেই ‘অপরাধ’-এর তালিকায় রয়েছে চুমু খাওয়া, শর্টস পরা, অ্যালকোহল সেবন-সহ আরও অনেক কিছু।

এসব বিধি নিষেধের মধ্যেই সৌদি প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিদেশি পুরুষ ও নারীকে হোটেলের একই ঘরে থাকার অনুমতি দেওয়া হবে। এর জন্যে তাঁদের প্রমাণ করতে হবে না কোনও সম্পর্কের বন্ধন। অর্থাত্‍ বিয়ে না করে অথবা আত্মীয় না হয়েও পুরুষ ও নারী এক ঘরে থাকতে পারবেন। এছাড়াও সৌদি নারীদের জন্যেও রয়েছে সুখবর। আগামীদিনে তাঁরা একাও হোটেল ঘর ভাড়া করে থাকতে পারবেন। এর ফলে অবিবাহিত একা মেয়েরাও নির্দ্বিধায় ঘুরতে যেতে পারবেন সৌদি আরবে।
সূত্র : এই সময়

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: