করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ২,৬৫৪ ◈ আজকে মৃত্যু : ৩৩ ◈ মোট সুস্থ্য : ১৪১,৭৫০
প্রচ্ছদ / সম্পাদকীয় / বিস্তারিত

আমরা জণসাধারনরা নিজের বিপদ নিজেরাই ডেকে আনছি

১১ জুলাই ২০২০, ১২:৪৫:৪৯

শফিকুল ইসলাম জেলা প্রতিনিধি, পটুয়াখালী
নোভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণে দেশ নয় বিশ্ব যেখানে প্রকম্পিত হতে চলেছে প্রতিনিয়ত, বিশ্বের বিভিন্ন দেশ তাদের অভিজ্ঞ ডাক্তার ও প্রযুক্তি ব্যবহার করে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি নোবেল করোনাভাইরাস আক্রমণের সংখ্যা।
বাংলাদেশ সরকার প্রতি মুহুর্তে ও আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন জনসাধারণকে সচেতন করতে ও চিকিৎসা সেবা দিতে। কিন্তু আমরা জনসাধারন আসলে কি সচেতন হয়েছি?

আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলছি,পটুয়াখালী শহরের মানা হচ্ছেনা কোন নিয়ম নীতি। শতকরা ২০% জনসাধারণ মাক্স ব্যবহার করেন বাকি ৮০ % ভাইয়েরা ও বোনেরা মাক্স ব্যবহার করেন না বললেই চলে। শহরের নেই কোন সুরক্ষা নেই নিয়মনীতি যার একমাত্র প্রতিচ্ছবি পটুয়াখালী নিউমার্কেট, কাঁচাবাজারে মনোহারী দোকান গুলো, লঞ্চঘাট, লঞ্চের ভিতর চৌরাস্তা। শহরের বাইরের কথা বলতে গেলে মনে হয় দেশে করোনাভাইরাস একটা গুজব। সরকার যা বলার বলুক প্রশাসন ব্যবস্থা নেয়ার নিক তাদের কিছু আসে জায় না। প্রশাসন সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন করোনাভাইরাসে সরকারের দেয়া নীতিমালা বাস্তবায়ন করতে ৷ পুলিশ,র‍্যাব,সেনাবাহিনী ও ব্যক্তি হিসেবে একজন মানুষ যিনি এ পর্যন্ত করোনা যুদ্ধ চালিয়ে মানুষের পাশে আছেন। সে আর কেউ নয় ফোকাস ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিচালক মেহেদী হাসান শিবলি। তাই প্রসাসনের সকল ভাইদের ও মেহেদী হাসান শিবলী কে ধন্যবাদ জানাই তাদের পরিশ্রম ও জনসচেতনতা মূলক কার্যক্রমের জন্য। পটুয়াখালী শহর থেকে একটু বাইরে আসলে বোঝা যাবে না দেশে বা বিশ্বে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ চলছে এর মধ্য হেতালিয়া বাধঘাট,পায়রাকুঞ্জ, শিয়ালী বাজার, বদরপুর বাজার,তেলিখালী বাজার,পুকুরজানা বাজার, সাতঘর বাজার, খেজুরতলা বাজার, ধানখালী বাজার, বাজার ২ নং ব্রিজ বাজার, লাউকাঠি এরকম হাজার বাজার আছে যেখানে নেই করোনার কোনো নীতিমালা।
সামাজিক দুরত্ব 3ফিট তো দূরের কথা ৬ ইঞ্চি ফাঁকা থাকে না একজন থেকে আরেকজনের মধ্যে। তারা পারলে গা ঘেঁষে মনে হয় যেন, আলিঙ্গন করবেন আজ ঈদের দিন সেরকম,তাহলে তাহলে বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সকল পদক্ষেপ সার্বিক মনিটরিং ও প্রশাসন বাহিনীর সকল প্রচেষ্টা ব্যর্থতায় পরিণত হবে। দেশে করোনা প্রকোপ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। একসময় জনগণ তাদের নিজেদের ভুল নিজেরাই বুঝতে পারবে কিন্তু তখন কিছু করার সময় থাকবে না।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: