করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ১,৭৮৮ ◈ আজকে মৃত্যু : ২৯ ◈ মোট সুস্থ্য : ৩৭৮,১৭২
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

ইউপি নির্বাচন : চেয়ারম্যান পদে চট্টগ্রামের জয়ী নৌকা ৫, স্বতন্ত্র ১

২১ অক্টোবর ২০২০, ৪:৩৫:৩১

চট্টগ্রাম ব্যুরো::
চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি ও লোহাগাড়ায় বিচ্ছিন্ন কিছু সহিংসতা ছাড়া অনুষ্ঠিত ভোটে ৬ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে সরকার দলীয় নৌকার ৫ প্রার্থীই জয়ী হয়েছেন। তবে লোহাগাড়ার আধুনগরে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থীই জয়ী হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) রাত ১২টার পর ১১টি ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ ও উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জয় পেয়েছে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীরা। মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) রাতে দিকে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও নির্বাচনের রিটানিং অফিসারগণ এ তথ্য জানিয়েছেন।

ফটিকছড়ি নির্বাচন কর্মকর্তা মো. হুমায়ুন কবির জয়ী প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, সুয়াবিল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামীলীগ প্রার্থী জয়নাল আবেদীন পেয়েছেন ৩ হাজার ৮৯০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীক নিয়ে মো. হায়াত পেয়েছেন ৩ হাজার ৩৯২ ভোট। আরেক ইউনিয়ন নানুপুরে আওয়ামী লীগ প্রার্থী নৌকা প্রতীক নিয়ে শফিউল আজম পেয়েছেন ৪ হাজার ৮২৯ ভোট এবং তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী ঘোড়া প্রতীক নিয়ে মো. আমান উল্লাহ পেয়েছেন ৩১৮৭ ভোট। বেসরকারি ভাবে নৌকার দুই প্রার্থীকে জয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।

সন্দ্বীপ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কাজী রবিউস সরওয়ার বলেন, হারামিয়া ইউনিয়নের বিএনপি প্রার্থী ধানের শীর্ষ প্রতীক নিয়ে আসিফ আকতার পেয়েছেন ২৩৯ ভোট এবং আওয়ামী লীগ প্রার্থী নৌকা প্রতীক নিয়ে মো. জসিম উদ্দিন পেয়েছেন ৭ হাজার ৫৫৭ ভোট। বেসরকারিভাবে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে জয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।

এদিকে, লোহাগাড়া সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী নৌকা প্রতীক নিয়ে মো. নুরুছফা পেয়েছেন ৯ হাজার ৪ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীক নিয়ে মো. শাহাবুদ্দিন পেয়েছেন ৬ হাজার ৯৯০ভোট। এছাড়া

আমিরাবাদ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী নৌকা প্রতীক নিয়ে এস এম ইউছুফ পেয়েছেন ১১ হাজার ১৬২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীক নিয়ে আবদুল মালিক পেয়েছেন ২ হাজার ৮৬০ ভোট।

আধুনগর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীক নিয়ে মো. নাজিম উদ্দিন ৩ হাজার ৮৮৪ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী টেবিল ফ্যান প্রতীক নিয়ে মো. আইয়ুব মিয়া পেয়েছেন ২ হাজার ১৭৩ ভোট। এখানে নৌকা প্রতীক তৃতীয় হয়েছেন।

এছাড়া মিরসরাই উপজেলার মিঠানালা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী, চন্দনাইশ উপজেলার বরকল ইউনিয়নের ৭ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য, রাউজান উপজেলার চিকদাইর ইউনিয়নের ৪ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য এবং ফটিকছড়ি উপজেলার খিরাম ইউনিয়নের ৫ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদের তিন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ায় সেখানে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে না।

নির্বাচনে মোট ২৮ জন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী, ১১৮ জন সাধারণ সদস্য এবং ৩৭ জন সংরক্ষিত সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: