এক খোঁচাতেই দিল্লির ভোলবদল!

৫ অক্টোবর ২০১৯, ৫:৫৮:০৮

হঠাৎ করেই বাংলাদেশে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির ফলে অস্তিরতা বিরাজ করছে বাজারগুলোতে। এই দাম বৃদ্ধির ফলে পেঁয়াজ ছাড়াই রান্না করতে হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার এমন মন্তব্যের পর তড়িঘড়ি ভারত সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করে ভোলবদলে বাধ্য হচ্ছে।

গত শুক্রবার (৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় দিল্লিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবীশ কুমার বলেন, পেঁয়াজ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী হাসিনা কী বলেছেন, সেটা আমাদের চোখে পড়েছে। তার এই উদ্বেগ কীভাবে প্রশমিত করা যায়, কীভাবে এই কনসার্নটা অ্যাকোমোডেট করা যায়, তা আমরা দেখছি।

রবীশ কুমার আরও বলেন, ‘বাংলাদেশে পেঁয়াজ রফতানির জন্য রবিবারের আগে যেসব এলসি খোলা হয়েছিল সেগুলোও কিন্তু আমরা এখন অনার করছি। সেই পেঁয়াজ বাংলাদেশে যেতেও শুরু করেছে।’

এর আগে বৃহস্পতিবার (২ অক্টোবর) রাতে বাংলাদেশ হাইকমিশনে তার সংবর্ধনার সময় উপস্থিত ভারতীয় অতিথিদের উদ্দেশে কথা প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেছিলেন, ‘জানি না কেন আপনারা পেঁয়াজ পাঠানো হঠাৎ বন্ধ করে দিলেন। আমাদের জন্য তো পরিস্থিতি খুব কঠিন হয়ে পড়েছে।’ তিনি হাসতে হাসতেই মন্তব্য করেছিলেন, ‘এমনকি আমি নিজেই তো পেঁয়াজ খাওয়া বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছি। আমার রাঁধুনিকে বলেছি, সব রান্না পেঁয়াজ ছাড়াই করতে।’

প্রসঙ্গত, ভারত থেকে আমদানিকৃত পেয়াঁজের দাম হিলি স্থলবন্দরে আমদানি কমের অজুহাতে আবারও বাড়ল। যে পেঁয়াজ গতকাল বন্দরে বিক্রি হয়েছে প্রতি কেজি ৫০ থেকে ৫৪ টাকা দরে। সেই পেঁয়াজ এক দিনের ব্যবধানে প্রকারভেদে কেজিতে ২০ থেকে ৩০ টাকা বেড়ে বন্দরে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজি দরে।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: