করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ৪০৭ ◈ আজকে মৃত্যু : ৫ ◈ মোট সুস্থ্য : ৪৯৬,১০৭
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

কপিলমুনিতে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনের দাবী

২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১২:৪৭:৩১

জি এম আসলাম হোসেন, কপিলমুনি (খুলনা) ঃ ঐতিহ্যবাহী বাণিজ্যিক শহর ও প্রস্তাবিত পৌরসভা কপিলমুনিতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের দাবি জানিয়েছে ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের জনগণ। বানিজ্যিক শহর কপিলমুনি ও হরিঢালী ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত বাজারের ছোট বড় মিলিয়ে প্রায় ৫ হাজারের বেশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে।
স্থানীয় ব্যবসায়ী জানান, ১৩৩৯ সনে রায় সাহেব বিনোদ বিহারী সাধু বিনোদগঞ্জ নামে বাজার স্থাপন করেন। পরবর্তীতে কপিলমুনি বাজার নামে পরিচিতি পায়। খুলনা-পাইকগাছা সড়ক ও বিশেষ জায়গা জুড়ে কপিলমুনি বাজার, যা দৈর্ঘ ও পস্থে অনেক বড়। প্রতিদিন খুলনা বিভাগের বিভিন্ন জেলা থেকে ব্যবসায়িক কাজে হাজার হাজার মানুষের সমাগম ঘটে এখানে। বাজারের পশ্চিম দিকে বয়ে গেছে কপোতাক্ষ নদ। সব দিক বিবেচনা করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ইতোমধ্যে কপিলমুনিতে বিনোদগঞ্জ পৌরসভা গঠনের কাজ শুরু করেছে। এছাড়া থানার দাবী রয়েছে দীর্ঘদিন। বর্তমানে কপিলমুনি পাইকগাছা উপজেলার অন্তর্গত হলেও সেই উপজেলাতে নেই কোন ফায়াস সার্ভিস স্টেশন। গুরুত্বপূর্ন ও ব্যবসায়িক কেন্দ্র বাজারে আগুন লাগলে অন্য উপজেলা থেকে দমকল বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌছানোর আগেই পুড়ে ছাই হয়ে যায় মূল্যবান সম্পদ।

বিগত দিনে ছোট খাটো অগ্নিকান্ডে সামান্য ক্ষয়ক্ষতি হলেও ১১ জানুয়ারি রাতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে দুইটি দোকান পড়ে প্রায় ১৫লাখ টাকার ক্ষতির ঘটনায় ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন স্থাপনের দাবি উঠেছে ব্যবসায়ীদের মাঝে। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী অসীম হোড় জানান, দোকান ও গোডাউনে লাখ লাখ টাকার মালামাল থাকে। আমরা কখনো ভাবিনি অগ্নিকান্ড এতটা ভয়াবহরূপ ধারন করতে পারে। নিমিষেই দুইটি দোকান আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আমাদের ব্যবসার মালামালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কপিলমুনিতে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনের দাবি বাস্তবায়ন করতে হবে।
নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যবসায়ীরা জানায়, বাজারে কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি অবৈধ দখল করে রাঘববোয়ালরা ব্যবসা বাণিজ্য করছে। সেই সব সরকারি জায়গায় ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনের উদ্যোগ নিতে হবে। (১৯নভেম্বর ২০২০) ফায়ার সার্ভিস ডিফেন্স সপ্তাহ-২০২০’ উদ্বোধনকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানান ১১টি আধুনিক মডেল ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনসহ চলতি ২০২১সাল নাগাদ আরও ১২৯টি নতুন ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপন করা হবে। এর ফলে প্রতিটি উপজেলার একটি করে ফায়ার সার্ভিস স্থাপিত হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ফায়ার সার্ভিসের সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য সরকার প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে। এর অংশ হিসেবে প্রতি উপজেলায় ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি উপজেলায় ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনের নির্দেশনা দিয়েছেন। যা পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘোষনা বাস্তবায়নের জন্য ব্যবসায়ীসহ সর্বস্থরের জনগন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বাণিজ্যিক শহর পাইকগাছা উপজেলার কপিলমুনিতে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনের দাবি জানিয়েছেন।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: