করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ০ ◈ আজকে মৃত্যু : ০ ◈ মোট সুস্থ্য : ১১,৫৯০
প্রচ্ছদ / শিক্ষা / বিস্তারিত

করোনায় বাংলাদেশের অর্থনৈতিক গতিপ্রকৃতি

২৩ এপ্রিল ২০২০, ২:১৪:২৩

কোভিড-১৯ যা করোনা ভাইরাস হিসাবে পরিচিত।যা বর্তমান সময়ে প্রধান শিরোনামে প্রাধান্য বিস্তার করে আসছে।সারা বিশ্বের মত করোনায় বিপর্যস্ত বাংলাদেশের অর্থনীতি ও।বাংলাদেশের অর্থনীতির প্রধান দুই চালিকা শক্তি হলো রপ্তানি ও রেমিট্যান্স।রপ্তানি মধ্যে পোশাক শিল্পকেই আমরাই প্রাধান্য দিয়ে থাকি।হাতেগোনা দুই একটা কারখানা ছাড়া বেশির ভাগই চাকা ঘুরছে নাহ।এতে করে বিপুল মানুষ গৃহবন্দী।যার ফলে প্রভাব পড়তে শুরু করেছে নানা দিকে।বাংলাদেশের অর্ধেকে এসে রপ্তানি,রাজস্ব, পন্য বাজার সংকুচিত হচ্ছে ।যা বাংলাদেশের অর্থনীতির মন্দার শুরুর আভাস । বাংলাদেশের দীর্ঘ অর্থনীতিকে তীক্ত করে তুলছে।বিভিন্ন প্রতিবেদন এ বলছে দেশের অর্থনীতি পরিস্থিতি খারাপ হলে ,দেশের সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হবে বানিজ্য খাত।যা ৯ হাজার ৬৯০ কোটি টাকা সমপরিমান।এক প্রতিবেদনে জানা যায়,২৫ই মার্চ সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত ৯৩৬ টি পোশাক শিল্পের অর্ডার বাতিল হয়েছে ৮.১৮ মিলিয়ন যার মূল্য ২১ হাজার ৯৩০ কোটি টাকার সমপরিমান।যা আদৌ আসবে কিনা তা পুরো পুরি অনিশ্চিত।

বাংলাদেশের অর্থনীতির অন্য বড় সুবিধাজনক খাত হলো রেমিট্যান্স ।করোনা শুরুর প্রথম দিক থেকেই রেমিট্যান্সের উপর বিরূপ প্রভাব বিস্তার করে আসছে।জানুয়ারী মাসে রেমিট্যান্স আসছে ১৬৩ কোটি ৮০লক্ষ ,ফ্রেবুয়ারীতে ১৪৩ কোটি ১৯ লক্ষ,মার্চে ১২৮ কোটি ৬৮ লক্ষ(গত ১৫ মাসের সর্বনিম্ন)।যেখানে রেমিট্যান্স জিডিপির ১২ শতাংশ।করোনার প্রভাবে তৈরি হচ্ছে বিশ্বমন্দা।এতে করে যারা দেশে আসছে(৬ লক্ষ ৬৬ হাজার ৫৩০জন) তারা আবার যেতে পারবে কিনা,এবং যারা আছে তারা থাকতে পারবে কিনা তা নিয়ে তৈরী হচ্ছে নতুন শঙ্কা। বাংলাদেশের মোট শ্রমশক্তি ৬ কোটি ৮ লক্ষ(১৪.৯%)।এতে অন্তত নয় লক্ষ মানুষ কর্মহীন হবে।এবং কর্মে নিয়জিত থাকবে ৫ কোটি ১৭ লক্ষ ৩৪ হাজার(৮৫.১%)।
জেপি মর্গান বলছে ,পরপর আগামী দুই প্রান্তিকে বিশ্ব অর্থনীতিতে ঋণাত্মক প্রবৃদ্ধি দেখা দিবে করোনা ভাইরাসের প্রভাবে।
প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, করোনার প্রভাবে ৩.০২ বিলিয়ন ডলারের বেশি অর্থনৈতিক ক্ষতি হবে ।করোনার কারণে অর্থনীতির যে বিপর্যয়, সেটি কাটিয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরতে সারা পৃথিবীর দেশগুলোর তিন থেকে পাঁচ বছর সময় লেগে যেতে পারে।বিশ্বের বিভিন্ন সংস্থা বলছে,দেশের অর্থনীতি অবস্থা আরো খারাপ হলে তা ভোগাবে কয়েক প্রজন্মকে

আজমীর হোসাইন পিয়াস
শিক্ষার্থী
নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: