করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ৩,২০১ ◈ আজকে মৃত্যু : ৪৪ ◈ মোট সুস্থ্য : ৭৬,১৪৯

করোনা হওয়া কি পাপ? শরনখোলায় আক্রান্তদের প্রশ্ন

৩১ মে ২০২০, ৭:০৯:০২

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধিঃ
করোনা হওয়া কি কোন পাপ না অভিশাপ? যে কোন রোগ-শোক দেওয়া ও নেওয়ার মালিক আল্লাহ। সে ক্ষেত্রে আমাদের অপরাধ কি ? করোনায় আমাদের মতো গরীব মানুষেরা অক্রান্ত হলে যদি দোষের হয়, তাহলে দেশে মন্ত্রী, এমপি, পুলিশ সাংবাদিক সহ বড় বড় ধনাঢ্য ব্যক্তিরা আক্রান্ত হচ্ছে কেন?

ক্ষোভের সাথে কথা গুলো বললেন, বাগেরহাটের শরণখোলায় করোনায় আক্রান্ত রোগী ও তাদের স্বজনেরা। উপজেলার খাদা গ্রামের বাসিন্দা মৃতঃ সুলতান তালুকদারের ছেলে টেইলার্স ব্যবসায়ী মোঃ সুমন তালুকদার বলেন, আমি গত ২২মে ঢাকা থেকে পরিবারের ৮সদস্যকে নিয়ে রাজাপুর এলাকার নিকট আত্মীয়র পরিত্যাক্ত বাড়িতে উঠি এবং আমাদের দেখে স্থানীয়রা বিষয়টি শরনখোলা থানা পুলিশকে অবহিত করেন। খবর পেয়ে পুলিশ আমাদেরকে ঘরে থাকার নির্দেশ দেন। পরে ধানসাগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ মঈনুল হোসেন টিপু বিষয়টি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে অবহিত করেন এবং ২৬মে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ ফরিদা ইয়াসমিন আমার পরিবারের ৮সদস্যের করোনা টেষ্টের জন্য নমুনা সংগ্রহ করেন। ২৯মে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা নিশ্চিত করেন আমার স্ত্রী শাহিনুর বেগম(২৭) শ্যালক জাহিদুল ইসলাম (১৮) এবং জাহিদুলের ভাবী মুক্তা বেগম (১৯)এর করোনা পজেটিভ। এ খবর এলাকায় জানাজানি হলে স্থানীয় কতিপয় বখাটের নেতৃত্বে আমাকে সহ আমার পরিবারকে নানা ভাবে হয়রানি শুরু করেন। পাশাপাশি ভয়ভীতি, অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ সহ শারিরিক ভাবে লাঞ্চিত করে কয়েক হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় ওই চক্র। বখাটেদের তোপের মুখে পড়ে আমি চরম ভাবে লাঞ্চিত হওয়ার পর বাধ্য হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহোদয়ের কাছে ফোন করি। পরে ইউএনও মহোদয় আমাদের উদ্ধার করে ৩০মে উপজেলা সদরের রায়েন্দা পাইলট হাইস্কুলে স¦াস্থ্য বিভাগের অস্থায়ী আইসোলেশন সেন্টারে রাখেন।

অপরদিকে, উপজেলার প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী আঃ হাকিম হাওলাদার বলেন, আমার শরীরে করোনা পজিটিভ ধরা পড়লে অতি উৎসাহিত কিছু লোক ফেইসবুকে আমাকে নিয়ে আজেবাজে মন্তব্য শুরু করেন। এমনকি প্রশাসনের বরাত দিয়ে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নাম সহ আমার নামে উপজেলা জুড়ে মাইকিং করা হয়। যা স্বাস্থ্যনীতির পরিপন্থী। আমাকে সহ আমার পরিবারকে অল্লীল ভাষায় গালাগাল সহ অপমান করা হয়েছে। এমনকি আমি করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় বাজার কমিটির সাবেক এক সদস্যের নেতৃত্বে স্থানীয় কিছু উশৃঙ্খল ব্যক্তি কয়েকদিন আগে আমার বাসায় হামলা চালায় এবং আমার স্ত্রী-পুত্রকে মারধর করেন।
এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পদক আলহাজ্ব আজমল হোসেন মুক্তা বলেন, বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের করোনায় আক্রান্ত রোগীদের ইতোমধ্যে বিনামূল্যে চিকিৎসা সহ আর্থিক সহযোগীতার ব্যবস্থা করেছেন। তবে, শরনখোলায় করোনায় আক্রান্তদের সার্বিক ভাবে সহয়তা করার জন্য প্রত্যেক ওয়ার্ডের দলীয় নেতাকর্মীদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যারা আক্রান্ত ব্যাক্তি ও তাদের পরিবারের সদস্যদের সাথে খারাপ আচরণ করেছেন তারা আমদের দলের কেউ নয়।

এছাড়া রায়েন্দা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা মোঃ মনিরুজ্জামান বলেন, আল্লাহর রাসুল (সঃ) হাদীসের বর্ননা মর্তে একজন মুসলমানের উপর আরেক জন মুসলমানের ৬টি হক রয়েছে। তার মধ্যে কোন অসুস্থ ব্যক্তিকে দেখতে যাওয়া তার খোঁজ খরব নেওয়া, তার চিকিৎসায় সহযোগীতা করা, অন্যায় ভাবে কোন মানুষকে কষ্ট দেওয়াটা ইসলাম সমর্থন করে না।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরদার মোস্তফা শাহিন বলেন, আক্রান্ত ব্যক্তিদের কেউ কোন ভাবে হয়রানির চেষ্টা করলে সে যেই হোক না কেন তার বিরুদ্ধে তাৎক্ষনিক কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।
বাগেরহাট জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ হুমায়ুন কবির জানান, আক্রান্ত ব্যক্তিদের সাথে কেউ কোন অসাদাচারন করতে পারবেন না। এমনটা হয়ে থাকলে তা অত্যন্ত দুঃখজনক। আজ যারা করোনায় আক্রান্তদের সাথে খারাপ আচরন করছেন আগামীদিন যে তারা আক্রান্ত হবেন না তার গ্রান্টি কি? তবে এ বিষয়ে শীগ্রই জন সাধারনকে সচেতন করার লক্ষ্যে পাড়া মহল্লায় প্রচার-প্রচারনার উদ্যেগ নেওয়া হবে।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: