fbpx
প্রচ্ছদ / শিক্ষা / বিস্তারিত

গলাচিপায় ব্যবহারিক পরীক্ষায় অনিয়মের অভিযোগ পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা উত্তোলন

১৯ মে ২০১৮, ৬:০৪:০৭

রাকিবুল ইসলাম, গলাচিপা প্রতিনিধি:
পটুয়াখালীর গলাচিপায় কৃষি শিক্ষা ব্যবহারিক পরীক্ষায় ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। গলাচিপা মহিলা ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে এইচ এস সি পরীক্ষা কেন্দ্রে এ অভিযোগ পাওয়া গেছে। সূত্র জানায়, গলাচিপা মহিলা ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে কৃষি শিক্ষা ব্যবহারিক পরীক্ষায় গলাচিপা সরকারি ডিগ্রি কলেজ, খারিজ্জমা ডিগ্রি কলেজ, চিকনিকান্দী কলেজ, বকুলবাড়িয়া কলেজের ৫২২জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক পরীক্ষার্থী জানায়, কৃষি শিক্ষা ১ম ও ২য় পত্রে ব্যবহারিক পরীক্ষার এ´টানাল পরীক্ষক ও ইন্টানাল পরীক্ষক কে ম্যানেজ করে সর্বোচ্চ নম্বর পায়ে দেয়ার কথা বলে ৭শত ১হাজার টাকা উত্তোলন করে। সরেজমিন পরীক্ষা চলাকালিন দেখা যায় শিক্ষার্থীর ব্যবহারিক খাতা পুরানো। কোনটি ২০১৬ সালের কোনটি ২০১৭ সালে খাতা। অধিকাংশ খাতাই ঘষামাঝা। অনেক খাতার উপর প্রতিষ্ঠানের নাম, শিক্ষার্থীদের রোল রেজিস্টেশন লেখা নেই। আবার ব্যবহারিক খাতায় কৃষি শিক্ষার শিক্ষক স্বাক্ষর না করে অফিস সহকারি স্বাক্ষর করেছে। এদের ভিতরে একধাপ এগিয়ে চিকনিকান্দী কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সমরেশ দেবনাথ। প্রতি শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে পরীক্ষার খাতা বাবদ ১৫০ টাকা করে নিয়ে পুরানো খাতা ধরিয়ে দেয়। বিষয়টি পরীক্ষার সাথে সংশ্লিষ্ট গলাচিপা মহিলা ডিগ্রি কলেজের কৃষি শিক্ষার প্রভাষক সৌমিত্র রঞ্জন সরকারের কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের সাথে অসৌজন্য মূলক আচারণ করে বলেন, এগুলো সাংবাদিকদের ব্যাপার না। পরীক্ষা সঠিক ভাবে নেয় হচ্ছে। গলাচিপা মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মো.শাজাহান মিয়া জানান, ব্যবহারিক পরীক্ষায় কোন অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। গলাচিপা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (চলতি দায়িত্ব) ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) সুহৃদ সালেহিন জনান, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: