প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

ছাতকের প্রত্যন্ত অঞ্চলে স্বল্পমূল্যে সেবা দিচ্ছে প্রাইভেট সিএসবি

৯ জানুয়ারি ২০১৯, ১০:৪৮:৫৪

ছাতক প্রতিনিধিঃ
ছাতক উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নের প্রত্যন্ত অঞ্চলে গর্ভবতী নারী ও শিশু স্বাস্থ্য পরিচর্যায় স্বল্প মুল্যে সেবা দিচ্ছে প্রাইভেট সিএসবি সদস্যরা। তাদের পরিচালনায় ‘কেয়ার-জিএসকে সিএইচডব্লি¬উ ইনিশিয়েটিভ’ কেয়ার বাংলাদেশ বেসরকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্য সেবায় সহযোগিতা করছে এই প্রতিণ্ঠান। উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে বর্তমানে মোট ৩৩জন প্রাইভেট সিএসবি সদস্যরা নারী গর্ভবতী নারীদের স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। তবে গর্ভকালীন অবস্থায় ঝুঁকিপূর্ণ নারীদেরকে লক্ষণ ভেদে স্থানীয় সরকারী হাসপাতালে পাঠানো হয়ে থাকে। এছাড়া ইউনিয়ন পর্যায়ের স্থানীয় কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোতে কেয়ার বাংলাদেশ এর প্রাইভেট সিএসবি নারী কর্মীদের মাধ্যমে সন্তান প্রসবেও দায়িত্বশীল ভুমিকা রাখছেন। সঠিক ভাবে স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে প্রত্যেক গর্ভবতী মায়েদের একটি কার্ড দেয়া হয়।

অপুষ্টির শিকার মাসুমা বেগম (২০) মা হতে চলেছেন। কিন্তু গর্ভবতী মা ও গর্ভের শিশুর স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহন ও স্বাস্থ্য পরিচর্যা দরকার। মাতৃত্বকালীন পুষ্টি ও স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতেই প্রাইভেট সিএসবি’র কাছে এসেছেন তিনি। ৪ মাসের অন্তঃসত্বা মাসুমা বেগমের স্বাস্থ্য খুব একটা ভালো নয়। তার শরীর অনেকটাই দুর্বল হয়ে পড়েছে। গ্রামের সেচ্চাসেবীদের পরামর্শে তিনি গর্ভকালীন চেকআপ করতে এখানে এসেছেন। বুধবার দুপুরে উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ সৈয়দেরগাঁও ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের চাকলপাড়া গ্রামের বাসিন্দা লিওন মিয়ার বাড়ীর অঙ্গিনায় বসে স্বাস্থ্যসেবা দিতে দেখা গেলো কেয়ার বাংলাদেশ’র নিয়োগকৃত প্রাইভেট কমিউনিটি স্কিল বাথ এটেনডেন্ট (সিএসবি) শাবানা বেগমকে। এসময় চাকলপাড়া গ্রামের গর্ভবতী নারী মাসুমে বেগমের মতো একই গ্রামের সাহেদা বেগম, মিনু বেগমসহ ৪জন নারী সেবা নেয়ার জন্য বসে ছিলেন।

প্রাইভেট সিএসবি শাবানা বেগম বলেন, আমাদের কেয়ার এর পক্ষ থেকে দীর্ঘ মেয়াদী প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। এলাকার গ্রামের নারীদের নিয়ে সেচ্ছসেবক দল আমাদের সার্বিক সহায়তা করছে। চাকলপাড়ার এই সেবা কেন্দ্রে সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত এলাকার ১৫ থেকে ২০জন নারী স্বল্পমূল্যে সেবা ও পরামর্শ নিয়ে থাকেন। হত-দরিদ্র গরীব নারীদের জন্য বিনামুল্যে সেবার ব্যবস্থা রয়েছে।

কেয়ার-জিএসকে সিএইচডব্লিউ ইনিশিয়েটিভ এর সুনামগঞ্জ জেলা প্রোগ্রাম ম্যানেজার সংকুরাজ মজুমদার বলেন, ছাতকে মা এবং শিশু স্বাস্থ্য সেবা প্রদানসহ পুরো সুনামগঞ্জ জেলায় ৩শতাধিক প্রাইভেট সিএসবি নারী সদস্যরা কাজ করছেন। তারা গর্ভবতী, গর্ভ-উত্তর, নিরাপদ প্রসব এবং শিশু স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করেন।

এদিকে, ছাতকে কেয়ার বাংলাদেশ এর গর্ভবর্তী মা ও শিশুর সেবা নিশ্চিত করতে এরমধ্যে স্থানীয় প্রশাসনের প্রতিনিধি, চিকিসৎক, জনপ্রতিনিধি ও সাংবাদিকের সমন্বয়ে গঠন করা হয়েছে ৭ সদস্যের একটি উপদেষ্টা কমিটি। বুধবার দুপুরে সু-সেবা নেটওয়ার্ক নামক ওই কমিটির সদস্য উপজেলা পরিষদের সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রাশিদা বেগম ন্যান্সি, উপজেলা সংরক্ষিত আসনের নারী সদস্য জয়ন্তী রানী দাস, দৈনিক সমকাল প্রতিনিধি ও উপদেষ্টা কমিটির সদস্য শাহ্ মো. আখতারুজ্জামান, কেয়ার এর প্রকল্প কর্মকর্তা মো. ইদ্রিছ আলী, মাঠ সমন্বয়কারী প্রনিতা রানী রায়, সৈয়দেরগাঁও ইউপির সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক অমিয় কান্তি সরকারসহ স্থানীয় কর্মকর্তাবৃন্দ প্রাইভেট সিএসবি’র গর্ভবতী নারীদের সেবা কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: