fbpx
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

ছাতকে আলোচিত রাব্বী হত্যাকান্ডে জড়িত আসামীরা রয়েছে ধরা-ছোঁয়ার বাইরে

১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭:৪৮:১১

ছাতক প্রতিনিধিঃ
ছাতকে আলোচিত মেহেদী হাসান রাব্বী হত্যাকান্ডে জড়িত আসামীরা রয়েছে ধরা-ছোঁয়ার বাইরে। ঘটনায় দেড় মাস অতিবাহিত হলেও হত্যাকান্ডে জড়িত কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় মামলার বাদী পক্ষের মধ্যে বিরাজ করছে ক্ষোভ ও হতাশা। ২৩ জুলাই রাতে ছাতক সিমেন্ট কারখানার ৪নং এলাকায় প্রতিপক্ষের তাকে ছুরিকাঘাতে খুন হয় শহরের নোয়ারাই এলাকার বাসিন্দা আলমগীর হোসেনের পুত্র মেহেদী হাসান রাব্বী (২২)। ২৬ জুলাই নিহতের মা রোকেয়া বেগম বাদী হয়ে পৌর কাউন্সিলরসহ ১৭ জনকে আসামী করে ছাতক থানায় একটি হত্যা মামলা (নং-২০) দায়ের করেন। ২ আগষ্ট আসামী গ্রেফতারের দাবীতে নোয়ারাই বাজারে মানববন্ধন করে এলাকাবাসী।
এদিকে, পৌর কাউন্সিলর লিয়াকত আলীকে এ মামলায় আসামী করায় বিবৃতি দিয়ে ক্ষোভ ও নিন্দা প্রকাশ করেছেন কাউন্সিলরবৃন্দ। শুধুমাত্র পূর্ব বিরোধের কারনে ও হয়রানীর জন্য দু’বারের নির্বাচিত জনপ্রিয় কাউন্সিলর লিয়াকত আলীকে আসামী করা হয়েছে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়। এ মামলায় ২০ আগষ্ট উচ্চ আদালত থেকে জামিন লাভ করেন পৌর কাউন্সিলর লিয়াকত আলীসহ মামলার ৬ আসামী। উচ্চ আদালতের বিচারপতি মোহাম্মদ আব্দুল হাফিজ ও বিচারপতি আহমদ সুহেলের দ্বৈত বেঞ্চ ছাতক পৌর কাউন্সিলর লিয়াকত আলীসহ ৬ জনের জামিন মঞ্জুর করেন। গত ৯ সেপ্টেম্বর পৌর কাউন্সিলর লিয়াকত আলীসহ ৬ আসামী সুনামগঞ্জ জেলা জজ আদালতে হাজিরা দিতে গেলে আদালত তাদের জামিন না-মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন। ওইদিন বাদী পক্ষের লোকজন আদালতের সামনে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে রাব্বী হত্যাকান্ডে জড়িতদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন করতে চাইলে পুলিশের বাঁধায় তা হয়নি। অপরদিক, এ হত্যা মামলায় কিছু নিরপরাধ ব্যক্তিকে আসামী করা হয়েছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। যুবলীগ নেতা, পৌর কাউন্সিলর লিয়াকত আলীকে রাব্বী হত্যা মামলায় আসামী করায় ক্ষোভ ও নিন্দা প্রকাশ করেছেন উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি দেলোয়ার মামুদ জুয়েল বক্স। রাব্বী হত্যা কান্ডে জড়িত প্রকৃত খুনীদের আইনের আওতায় আনার দাবী জানিয়ে তিনি এক বিবৃতিতে জানান, ঘটনার সময় পৌর কাউন্সিলর লিয়াকত আলী স্বজনদের বিদায় দিতে ওসমানী বিমান বন্দরে অবস্থান করছিলেন। শুধুমাত্র রাজনৈতিক ও পারিবারিক বিরোধের আক্রোশে তাকে এ মামলায় আসামী করা হয়েছে। তিনি তার নিঃশর্ত মুক্তি ও মামলা থেকে তার নাম প্রত্যাহারের দাবী জানিয়েছেন। ##

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: