হেলাল আহমদ

ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি

ছাতকে সবজী চাষ করে স্বাবলম্বী কৃষক বতুল্লাহ মিয়া

৮ মে ২০১৯, ১০:৩৮:১৩


ছাতক প্রতিনিধিঃ

ছাতকে সবজী চাষ করে বতুল্লাহ মিয়া এখন স্বাবলম্বী। সুরমা নদীর তীরে জেগে উঠা চরে পতিত ভূমিতে অন্যের জায়গা বর্গা নিয়ে মৌসুমী সবজি চাষ করেন বতুল্লাহ মিয়া। তিনি দীর্ঘ দিন ধরে পাথর শ্রমিকের কাজ করে স্বাবলম্বী হতে না পারায় কৃষি কাজের প্রতি মনোনিবেশ করেন। উপজেলার কালারুকা ইউনিয়নের হরিশপুর গ্রামের মৃত কালা মিয়ার ছেলে বতুল্লাহ মিয়া ৩ বছর আগে পাথর শ্রমিকের কাজ ছেড়ে দিয়ে গ্রামের কাছে সুরমা নদীর পাড়ে জনৈক ব্যক্তির কাছ থেকে ১ একর ভূমি সবজি চাষের জন্য বর্গা নেন। পরে এ ভূমিতে মৌসমী সবজি ভূট্টা, ডাটা, মুলা, ধনিয়া, টমেটো, কলমশাক, শসা, মিষ্টিলাউ, কুয়াসলাউসহ নানা শাক সবজি ফলিয়ে পরিচর্চা করতে থকেন। কোন ধরনের সার ও কীটনাশক ব্যবহার না করে গোবর সার ও সময়মত পানি দিয়ে বাম্পার ফলন পেয়ে খুশিতে আত্মহারা তিনি। ৫০ হাজার টাকা বিনিয়োগ করে প্রতিমাসে ২৫হাজার টাকা আয় করে ৪ মাসে প্রায় লক্ষাধিক টাকা আয় করতে পেরেছেন তিনি।

বতুল্লাহ মিয়ার অভিযোগ, স্থানীয় কৃষি অফিস হতে সহযোগীতা চেয়েও কোন ধরনের সহযোগীতা তিনি পাননি। কৃষি অফিস থেকে সঠিক পরামর্শ, রোগ বালাই সম্পর্কে ধারণা, কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহারের সুযোগ পেলে তিনি দ্বিগুন ফসল উৎপাদন করতে সক্ষম হতেন। বতুল্লাহ মিয়া আগামী মৌসুমে সুরমা নদীর চরে কয়েক একর ভূমি বর্গা নিয়ে এবং কয়েকজন বেকার শ্রমিককে কাজে লাগিয়ে বাম্পার ফসল উৎপাদন করার স্বপ্ন দেখছেন। সরকারি সহযোগিতা পেলে ফসল উৎপাদনে আরো এগিয়ে যাবেন এমনটিই প্রত্যাশা করেছেন তিনি।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: