করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ২,১৫৬ ◈ আজকে মৃত্যু : ৩৯ ◈ মোট সুস্থ্য : ৩৬৯,১৭৯
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

ডোমারে মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের শিক্ষা দান

১৯ অক্টোবর ২০২০, ১:৪৮:৪৩

পঞ্চানন রায়, ডোমার (নীলফামারী ) প্রতিনিধি : বিখ‍্যাত দার্শনিক নেপোলিয়ন বোনাপার্ট উক্তি ‘ আমাকে শিক্ষিত মা দাও, আমি তোমাদের শিক্ষিত জাতি দেব।’ শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড। যে জাতি যত বড় শিক্ষিত, সে জাতি ততো বড় উন্নত।
বাংলাদেশসহ বিশ্বে যখন করোনার মহামরী ঠিক তখন গণ প্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের হিন্দু ধর্মীয় কল‍্যাণ ট্রাস্ট কর্তৃক পরিচালিত মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম নিয়েছে ব‍্যতিক্রম উদ্যোগ। নিরক্ষর মুক্ত বাংলাদেশ ও সবার জন্য শিক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নীলফামারী জেলার ডোমার উপজেলায় প্রাক – প্রাথমিক ২০টি, বয়স্ক শিক্ষা ১টি এবং গীতা শিক্ষা ১টি করে মোট ২২ টি শিক্ষা কেন্দ্র চালু আছে।
উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, শিক্ষক গণ জেলা কার্যালয়ের দিকনির্দেশনামূলক অনুসারে তাদের পাঠদান করাচ্ছেন। সাপ্তাহিক একদিন শনিবার বেলা ১১.০০ ঘটিকায় ডোমার উপজেলার সকল শিক্ষা কেন্দ্রে করোনা মুক্তির লক্ষ্যে মন্দির কমিটির সভাপতি ও সম্পাদক উপস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের নিয়ে স্বাস্থ্য বিধি মেনে মাস্ক ব‍্যবহার নিশ্চিত করে সমবেত প্রার্থনা করেন। এছাড়াও প্রতিদিন গড়ে ৫ জন শিক্ষার্থীকে নিয়ে শিক্ষক গণ হোম ভিজিটের মাধ্যমে স্বাস্থ‍্য সচেতনতার পরামর্শ সহ কেন্দ্রের পাঠ নির্দেশনা ও রুটিন মতে, পাঠের প্রতি আসক্ত করা ও খোজখবর রাখেন।
দেখা মিলে শিক্ষক আলো মতি রানী, লিপি রানী, ছায়া রানী ও কালী শংকর রায় সাথে।
শিক্ষক আলো মতি রানী জানান, মন্দির ভিত্তিক শিক্ষা কার্যক্রম নীলফামারী জেলা অফিসের নির্দেশনা অনুসারে হোম ভিজিট ও শিক্ষা কেন্দ্রে স্বল্প সংখ্যক শিক্ষার্থী নিয়ে ধর্মীয় শিক্ষা দান যেমন : সমবেত প্রার্থনা, মন্ত্র পাঠ, বিভিন্ন শারীরিক ব‍্যয়ামের মাধ্যমে সপ্তাহে শিক্ষা দান করে যাচ্ছি।
আরেক শিক্ষক কালী শংকর রায় বলেন, আমি জেলা অফিসের নির্দেশ মতো শিক্ষার্থীদের পাঠ দান চালাচ্ছি। শিশুদের পাঠ দান চালু রাখতে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় কে ধন্যবাদ ও সাধুবাদ জানাচ্ছি।
ডোমার, ডিমলা, জলঢাকা উপজেলার দায়িত্বরত ফিল্ড সুপার ভাইজার আনন্দ সরকার বলেন, করোনা বৈশ্বিক মহামারী কালীন সময়ে সকল শিক্ষক গণ কে জুম অ‍্যাপসে যুক্ত করে ভিডিও কন্ফারেন্স, প্রশিক্ষণ, মাসিক সমন্বয় সভা নিয়মিত ভাবে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণ শিক্ষা কার্যক্রম সহ হিন্দু ধর্মীয় কল‍্যাণ ট্রাস্ট এর সকল দাপ্তরিক কার্যক্রম চালু রয়েছে।
উল্লেখ্য, সরকার দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবছরের গত ১৭ মার্চ হতে কয়েক দফায় বৃদ্ধি করে ৩১ শে অক্টোবর পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করেন।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: