fbpx

দেশের উন্নয়নে নারীর ভূমিকা

নারীদের বাদ দিয়ে দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন করা সম্ভব নয় – ত্রাণ মন্ত্রী

১৩ এপ্রিল ২০১৮, ৯:৪১:০২

নারীদের বাদ দিয়ে দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন করা সম্ভব নয় – ত্রাণ মন্ত্রী

মো. দ্বীন ইসলাম, মতলব উত্তর (চাঁদপুর)
মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজীকান্দি ইউনিয়নে এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের আওতায় সেলাই মেশিন ও স্কুল ব্যাগ বিতরণ করা হয়েছে। লোকাল গর্ভমেন্ট সাপোর্ট প্রজেক্টের (এলজিএসপি-৩) কর্ম দক্ষতার বরাদ্দ থেকে গতকাল শুক্রবার ফরাজীকান্দি ইউনিয়নের ১০১নং সরদারকান্দি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অতিদরিদ্র পরিবারের মাঝে ৫ লাখ টাকা ব্যয়ে একটি প্রকল্পের মাধ্যমে ৩০টি সেলাই মেশিন ও ২৫০টি স্কুল ব্যাগ বিতরণ করা হয়। বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম এমপি। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সরকার অসহায়, দারিদ্র ও দুঃস্থদের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। অসহায় ও অসচ্ছল মানুষদের পুর্নবাসন এবং দারিদ্র্রমুক্ত দেশ গড়ার মধ্য দিয়ে একটি শিক্ষিত সমাজ উপহার দেওয়া বর্তমান সরকারের লক্ষ্য। দেশে দারিদ্রের হার অনেকাংশে কমেছে। আতœ কর্মসংস্থা‌নের মাধ্যমে দেশ অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্বী হচ্ছে। ২০২১ সালের মধ্যে দেশ বিশ্বে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে। আর এটি সম্ভব হ‌চ্ছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায়। আওয়ামীলীগ সরকার যেমন অসহায় মানুষের সাথে ছিলো বর্তমানে আছে এবং ভবিষ্য‌তেও তাদের সুখ-দুঃখে তাদের সাথে থাকবে। তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দরিদ্র নারীদের ভাগ্য উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। কোন নারী এই সরকারের আমলে অযন্তে অবহেলায় থাকতে দেওয়া হবে না। তারাও নিজেদের পায়ে দাঁড়াতে পারে সেজন্য বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। প্রতিবন্ধী ও অসহায় নারীদের এখন আর অবহেলার কোন সুযোগ নেই। তারা সংসারের কাজকর্মের পাশাপাশি এখন সমাজের বিভিন্নস্তরে আলো ছড়াচ্ছে। তাই নারীদের বাদ দিয়ে দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন করা সম্ভব নয়। প্রশিক্ষিত নারী সমাজ ও দেশের দারিদ্র বিমোচনে বিরাট ভূমিকা রাখবে। এই জন্য তাদেরকে সুযোগ সৃষ্টি করে দিতে হবে।

ফরাজীকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন দানেশের সভাপতিত্বে ও জাতীয় শ্রমিকলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক লায়ন ফারুক আহমেদ (তিতাস) এর স ালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তার, মতলব উত্তর চেয়ারম্যান কল্যাণ সমিতির সভাপতি ও স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত মোহনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সামছুল হক চৌধুরী বাবুল, ভাইস চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম সরকার ইমন, জেলা পরিষদের সদস্য মিনহাজ উদ্দিন খান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- চাঁদপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-২ এর জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) মো. আবু তাহের, মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ারুল হক কামাল, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক তামজিদ সরকার রিয়াদ, ইউপি সচিব নাছির হোসেন খান, ইউপি সদস্য মাহবুব আলম মিস্টার, আ. হালিম সরকার, শফিকুল ইসলাম পাটোয়ারী, সালাউদ্দিন প্রধান, জাকির হোসেন বেপারী, ইসমাইল হোসেন, নাছির হোসেন মুন্সি, খাজা আহমেদ,আ’লীগ নেতা এনায়েত মিজি, জমশেদ বেপারী, সালাউদ্দিন বেপারী, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা বেলাল হোসেন দেলোয়ার, তাজুল ইসলাম, কবির হোসেন, আ. ছাত্তর, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা শাহ আলম বেপারী, হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: