প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

পথশিশুদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা সহযোগীতা দেয়া সংগঠন “প্রত্যাবর্তন” এর পথশিশুদের নিয়ে ইফতার মাহফিল

১ জুন ২০১৯, ১০:১৫:০৬

মোজাম্মেল হক, ঢাবি প্রতিনিধি :
শিশুদের মধ্যেই সুপ্ত থাকে বিভিন্ন প্রতিভা। তারাই হবে দেশ ও জাতির অগ্রনায়ক।তারাই হবে ভবিষ্যতের কবি, শিল্পী, বৈজ্ঞানিক, সাহিত্যিক, চিকিৎসক, রাজনীতিবিদ সর্বোপরি আগামীর বাংলাদেশ।

আজ যে শিশু পৃথিবীর আলোয় এসেছে, আমরা তার তরে একটি সাজানো বাগান চাই।’ গানের ভাষায় এমনটি বলা হলেও, সব শিশুর জন্ম কিন্তু সাজানো বাগানে হয় না। সারাদেশে এমন অনেক শিশু রয়েছে পথেই যাদের জন্ম ও পথেই বসবাস। পথে পথে বেড়ে ওঠা এমন শিশুদেরকে ‘টোকাই’, ‘পথকলি’, ‘ছিন্নমূল’ বা ‘পথশিশু’ বলা হয়ে থাকে।

আর আমরা জানি শিক্ষা ছাড়া কোনো জাতি কখনো উন্নতির চরম শিখরে আরোহণ করতে পারে না। তাই এসব অধিকার বঞ্চিত শিশুকে আত্মশক্তিতে বলীয়ান করে তুলতে চাই উপযুক্ত শিক্ষা ও পরিবেশ।

আর এসব সুবিধা বঞ্চিতদের শিক্ষা দিয়ে গড়ে তুলতে কুমিল্লার কিছু তরুণ এ বছরের ১লা জানুয়ারিতে গড়ে তুলে “প্রত্যাবর্তন ” নামক একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। যারা এর মাধ্যমে কুমিল্লা শহরের সুবিধা বঞ্চিত ও পথশিশুদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা ও শিক্ষা উপকরণ দিয়ে সহায়তা করে থাকে। তারা চায় সমাজে ইতিবাচক পরিবর্তন আসুক, সমাজ হোক নিরক্ষর মুক্ত। সমাজের প্রতিটা মানুষ যেন শিক্ষার সুযোগ পায় এটাই তাদের লক্ষ্য।

প্রতিষ্ঠানটি গড়ে তোলার পিছনে কাজ করে কুমিল্লার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ ও স্কুলের ছাত্ররা। তার মধ্যে কুৃমিল্লা ব্রিটানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আসিফ হোসেন, কলেজ ছাত্র মিনহাজুল ইসলাম, আজমীর হোসেনের ভূমিকা ছিলো উল্লেখযোগ্য।

বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটিতে প্রায় ৬০ জন শিক্ষার্থী ও ২০ জন শিক্ষক রয়েছেন। প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনার ক্ষেত্রে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোহাম্মদ জলিল মিয়া, ব্যবসায়ী নাছির হোসেন ও রিটায়ার্ড প্রাপ্ত সরকারী কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম পৃষ্ঠপোষকের ভূমিকায় সাহায্য করে যাচ্ছেন।

আজ (৩১ মে) তারা পথশিশুদের নিয়ে ইফতার মাহফিল ও আলোচনা সভার আয়োজন করেন। উক্ত সভায় কাউন্সিলর মোহাম্মদ জলিল মিয়া বলেন, তিনি এ প্রতিষ্ঠানের সাথে থাকতে পেরে খুবই আনন্দিত ও আগামীতে ও তিনি সকল প্রকার সহযোগীতা করে যাবেন। উক্ত সভায় শহরের মান্যগণ্য, সমাজকর্মী ও বিভিন্ন পেশার মানুষজন উপস্থিত ছিলো।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: