প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

পদ্মার চেয়েও বড় সেতু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশে

১১ নভেম্বর ২০১৯, ১১:৪৭:৫০

কাগজে কলমে আপাতত বাংলাদেশের দীর্ঘ সেতু হচ্ছে পদ্মা সেতু। কিন্তু আপনিকি জানেন এর চেয়ে বড় সেতু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশে। যার দৈর্ঘ্য হবে ৮ দশমিক ৬৪ কিলোমিটার। যা নির্মাণাধীন পদ্মা সেতুর চেয়েও দীর্ঘতম। দক্ষিণাঞ্চলের একমাত্র দ্বীপ জেলা ভোলার সাথে সরাসরি সড়ক পথে বরিশালসহ আশপাশের জেলাগুলোর যোগাযোগ সহজ করতে নির্মিত হবে দেশের দীর্ঘতম সেতু। প্রকল্পটির মূল উদ্দেশ্য, বরিশাল ও ভোলা জেলার মধ্যবর্তী তেঁতুলিয়া ও কালাবদর নদীর ওপর সেতু নির্মাণের মাধ্যমে ভোলা জেলার সঙ্গে দেশের মূল অংশ বরিশালের সরাসরি সড়ক যোগাযোগ স্থাপন করা। ইতিমধ্যে জমি অধিগ্রহনের কাজ সমাপ্ত হয়েছে বলেও জানা যায়।

গত মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর বনানীতে সেতু ভবনের সম্মেলন কক্ষে সেতু বিভাগ ও বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন তিনি। সে সময় তিনি সেতুটির ভায়াডাক্টের পরে প্রায় আট কিলোমিটার ফিজিবিলিটি শেষ হয়েছে বলে উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, ‘ভোলার সঙ্গে বরিশালসহ অন্য জেলাগুলোর সংযুক্ত করতেই নির্মিত করা হবে দেশের এ দীর্ঘতম সেতু। যার দৈর্ঘ্য হবে ৮ দশমিক ৬৪ কিলোমিটার, যা নির্মাণাধীন পদ্মা সেতুর চেয়েও বড়। সরকারের সবচাইতে বড় মেগাপ্রকল্প বলা চলে এটিকে।’

ভোলা বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ দ্বীপ। এর চারপাশে লক্ষীপুর, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী ও বঙ্গোপসাগর। এ জেলায় রয়েছে প্রাকৃতিক গ্যাস, যা বিদ্যুৎ উৎপাদনে ব্যবহৃত হচ্ছে। তবে জেলাটি দেশের মূল অংশ থেকে বিচ্ছিন্ন। বর্তমানে ফেরি ও অন্যান্য নৌযানের মাধ্যমে ভোলার সাথে পাশের জেলাগুলোর যোগাযোগ চালু রয়েছে। সরাসরি সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা না থাকায় ভোলা থেকে অন্য জেলাগুলোয় পণ্য আনা-নেওয়া ও যাতায়াত বেশ কঠিন। এটি জেলার ব্যবসা-বাণিজ্যসহ আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে বিরূপ প্রভাব ফেলছে।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: