করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ১,৪৮৮ ◈ আজকে মৃত্যু : ২৬ ◈ মোট সুস্থ্য : ২৭৩,৬৯৮
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

পর্যটকদের শব্দের দূষণে টাঙ্গুয়ার হাওরের পরিবেশ হুমকি সহ স্থানীয়রা অতিষ্ঠ

৩ আগস্ট ২০২০, ৬:৫৮:০০

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

,তাহিরপুর:সুনামগঞ্জ পরিবেশ সংকটাপন্ন এলাকা টাঙ্গুয়ার হাওর পারে বসবাসরত জনগোষ্ঠী পর্যটকদের মাত্রাতিরিক্ত শব্দ দূষণের কারণে অতিষ্ঠ হয়ে উঠছে। অন্যদিকে হাওরের পরিবেশ রয়েছে শব্দ দূষণের হুমকির মুখে । প্রতিদিন পর্যটকরা ইঞ্জিনচালিত নৌকা করে মাইক ও লাউডস্পিকার সাউন্ড বাজিয়ে অনিয়মিত ভাবে টাঙ্গুয়ার হাওর ও আশপাশের এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছে । যার কারণে স্থানীয় মুসল্লিদের ইবাদতের ব্যাঘাত সহ বিভিন্ন সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়াও টাঙ্গুয়ার হাওরের পরিবেশের ক্ষয়ক্ষতি দিনদিন বেড়েই চলছে।মাত্রাতিরিক্ত শব্দদূষণের কারণে সুস্থ মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়ছে। শব্দদূষণ সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে অর্থদণ্ড ও কারাদণ্ডের বিধান থাকলেও তাহিরপুর উপজেলায় তা প্রয়োগ হচ্ছে না।
বর্তমান করোনা পরিস্থিতি টাঙ্গুয়ার হাওর সহ উপজেলার বিভিন্ন পর্যটনে ভ্রমণ প্রশাসন কর্তৃক নিষিদ্ধ এছাড়াও টাঙ্গুয়ার হাওর পরিবেশ বান্ধব পর্যটন এলাকা ভ্রমণে পর্যটকদের জন্য নিয়মনীতি মধ্যে বলা হয়েছে, হাওরে রওয়ানা হবার পূর্বে তাহিরপুর থানায় নিরাপত্তার জন্য জিডি করে নিন,খাবারের অতিরিক্ত অংশ/উচ্ছিষ্ট প্যাকেট হাওরের পানিতে ফেলা হতে বিরত থাকুন,উচ্চ শব্দ সৃষ্টকারী মাইক ও লাউডস্পিকার যন্ত্র পরিহার করুণ,রাতের বেলা অতিরিক্ত উজ্জ্বল আলো উৎপন্ন হতে বিরত থাকুন,টাঙ্গুয়ার হাওরের মাছ,বন্যপ্রাণী কিংবা পাখি ধরা বা এদের জীবন হুমকির মধ্যে পড়ে এমন কাজ থেকে বিরত থাকুন,টাঙ্গুয়ার হাওরের জলাবনের কোন রুপ ক্ষতিসাধন না করার ব্যাপারে সতর্ক থাকুন।
কিন্তু টাঙ্গুয়ার হাওর সহ একাধিক স্পট ঘুরে দেখা যায় ঈদুল আযহা কে কেন্দ্র করে ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন স্থান হতে আগত পর্যটকগন ইঞ্জিনচালিত নৌকা করে মাইক ও লাউডস্পিকার সাউন্ড বাজিয়ে টাঙ্গুয়ার হাওর সহ, টেকেরঘাট, বারেকের টিলা, যাদুকাটা নদী,ও শিমুল বাগানে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে দলবদ্ধ ভাবে ঘুরেবেড়াচ্ছেন।
বর্তমান করোনা পরিস্থিতে টাঙ্গুয়ার হাওরে ভ্রমণ নিষিদ্ধ ও হাওরে ভ্রমণকালে উচ্চ শব্দ মাইক লাউডস্পিকার ব্যবহার না করার নিয়মনীতি রয়েছে এ বিষয়ে ময়মনসিংহ হতে ঘুরতে আসা ইলিয়াস আমিন এর কাছে জানতে চাইলে উনি বলেন,করোনাকালিন সময়ে ভ্রমণ নিষিদ্ধ থাকলেও আমরা টানা কয়েকমাস ঘরবন্ধি থাকায় আমাদের জনজীবন অস্থির হয়ে পড়েছে। তাই নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্যেও ঘুরতে আসা,ঘুরতে আসলে বাদ্যযন্ত্র উচ্চ শব্দ ব্যবহার করা হচ্ছে এমন প্রশ্নের জবাবে উনি বলেন সাউন্ড সিস্টেম না থাকলে ভ্রমণে ভাল লাগে না।
হাওর পারের একাধিক ব্যাক্তি জানান শব্দের দুষণে কোন আইন আছে বলে তাদের জানা নেই। যদি থাকতো তাহলে পর্যটকদের শব্দের দুষণে আমরা অতিষ্ঠ,চলমান করোনা পরিস্থিতে টাঙ্গুয়ার হাওর সহ উপজেলার সবকটি পর্যটনে বিগত তিনচার মাস পূর্বে পর্যটকদের জন্য ভ্রমণ নিষিদ্ধ রয়েছে দেখার কেউ নেই। কিন্তু মাস পনের দিন যাবৎ প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসছে পর্যটরা এবং নিয়মবহির্ভূত ভাবে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে সাউন্ড সিস্টেম নিয়ে ঘুরাফেরা করছেন যেন দেখার কেউ নেই।
তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পদ্মাসন সিংহ বলেন গণমাধ্যম কে জানান করোনা পরিস্থিতে তাহিরপুর উপজেলা পর্যটন স্পটে পর্যটকদের আগমন নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। নিষেধাজ্ঞা সত্বেও যারা আসছেন তারা ব্যাক্তিগত ভাবেই আসছেন, আমাদের অভিযান চলাকালে কোন পর্যটককে পর্যটন স্পটে পেলে তাদের আইনের আওতায় নেওয়া হবে।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: