প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

প্রশাসনের নিরবতায় জনমনে প্রশ্ন ॥ মির্জা আজম এমপির হস্তক্ষেপ কামনা।।

১০ মার্চ ২০১৮, ৯:১৯:৪৪

রাকিবুল হাসান জামলপুর প্রতিনিদিঃ

জামালপুরে কৃষি শিল্প বাণিজ্য মেলার নামে প্রতিরাতে চলছে হাউজী নামক লাখ-লাখ টাকার জমজমাট জুয়ার আসর স্টাফ রিপোর্টার ॥ জামালপুরে কৃষি শিল্প বাণিজ্য মেলার নামে প্রতিরাতে চলছে হাউজী নামক লাখ-লাখ টাকার জমজমাট জুয়ার আসর। প্রশাসনের নিরবতায় জনমনে প্রশ্ন ওঠেছে। অনতিবিলম্বে এ জুয়া বন্ধে মির্জা আজম এমপির হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন জামালপুরবাসী। জানা যায়, জামালপুর বিএডিসি মাঠে মাসব্যাপী কৃষি শিল্প ও বাণিজ্য মেলা গত ১মার্চ বৃহস্পতিবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে। অথচ, শুরুর পর থেকে একশ্রেণির জুয়াড়িরা মেলাকে ঘিরে মেতে ওঠে ভিন্ন ষড়যন্ত্রে। আয়োজন করে হাউজী নামক জুয়ার। রাত আটটার পর থেকে যখন শহরের কর্মব্যস্ত মানুষ একটু নির্মল বিনোদন উপভোগ করতে স্বপরিবারে দি জামালপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি আয়োজিত মেলায় আসতে শুরু করে ঠিক সে সময় অর্থলোভী জুয়াড়িরা প্রকাশ্যে মেলার অভ্যন্তরে মাইকে ঘোষণা দিয়ে চালাতে থাকে হাউজী নামক জমজমাট ভয়াবহ জুয়া। আর এ জুয়ার অংশ নিতে জেলা ও জেলার বাইরে থেকে আসে ডাকসাইটে জুয়াড়ি ও বখাটেরা। এদের উপদ্রবে একদিকে যেমন নষ্ট হচ্ছে মেলার স্বাভাবিক পরিবেশ। তেমনি প্রতি রাউন্ডে রাউন্ডে চলছে হাউজীর মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার মহোৎসব। এদিকে মেলার নামে জুয়ার আসর চলতে থাকায় জনমনে প্রশাসনের নিরবতা নিয়ে ওঠেছে নানা প্রশ্ন। এদিকে হাউজীর খবর প্রকাশ না করার শর্তে সংবাদকর্মীদের মধ্যে টাকা ছিটানোর কৌশল অনেকটা কাজে লাগলেও ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হাউজীর প্রতিবাদে ক্রমেই সরব হয়ে উঠছে প্রতিবাদী জামালপুরবাসী। অপরদিকে একশ্রেণির নামধারী সংবাদকর্মী ও প্রশাসনের অসাধু ব্যক্তিবর্গকে ম্যানেজ করে এ জুয়া নিয়মিতকরণে প্রতিরাতে ছিটানো হচ্ছে টাকা ও হাউজীর ফ্রি-সিট। জামালপুরের সচেতন নাগরিকবৃন্দ অনতিবিলম্বে এ জুয়া বন্ধে জামালপুরের সার্বিক উন্নয়নের প্রাণপুরুষ আলহাজ্ব মির্জা আজম এমপির হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। পাশাপাশি ম্যাসব্যাপী এ মেলাকে জুয়ামুক্ত করে পরিবার-পরিজন নিয়ে উপভোগের ব্যবস্থা করণে মেলার ব্যবস্থাপনা থেকে জুয়ারি ব্যক্তিবর্গকে সরানোর জোর দাবী জানিয়েছেন তারা। উল্লেখ্য, গতবার বেনারসি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট নামক দেশকুখ্যাত জুয়াড়ি প্রতিষ্ঠানের সাথে আঁতাত করে র‌্যাফেল ড্র নামক জুয়া পরিচালনা করে জামালপুরবাসীর কাছ থেকে কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার ঘটনায় জেলাজুড়ে নিন্দার ঝড় ওঠায় আলহাজ্ব মির্জা আজম এমপির হস্তক্ষেপে তা বন্ধ হয়ে যায়। এবার তাই র‌্যাফেল ড্র্র আয়োজন না করে ভিন্ন কৌশল নিয়েছে খোদ মেলার আহ্বায়ক আর জুয়া চালাতে তাকে সহায়তা করছে সাংবাদিক নামধারী জুয়ার পৃষ্ঠপোষক এক ব্যবসায়ী নেতা।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: