করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ০ ◈ আজকে মৃত্যু : ০ ◈ মোট সুস্থ্য : ১১,৫৯০
প্রচ্ছদ / শিক্ষা / বিস্তারিত

ফান্ডিং এর প্রয়োজন কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তায় প্রজেক্ট ডাক্তার করোনা

২১ এপ্রিল ২০২০, ১:৪১:৩১

মোঃ ফাহাদ হোসেন নোবিপ্রবি প্রতিনিধি

করোনা আতঙ্কে আতঙ্কিত সারাবিশ্ব। করোনা রোগীদের চিকিৎসা দিতে টালমাটাল গোটা পৃথিবীর চিকিৎসা ব্যবস্হা। করোনা রোগীদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন হাজারো ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মী। রোগীদের জীবন বাঁচাতে অকাতরে জীবন দিয়েছেন আরো অনেকে । এমন পরিস্থিতিতে নোবিপ্রবি এবং চুয়েট শিক্ষার্থীরা করোনা চিকিৎসায় যোগ করলো নতুন মাত্রা,যার নাম ডাক্তার করোনা।যেটি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সাহায্য সেবা প্রদান করেবে এক জন ডাক্তারের মত করে।
এই উদ্ভাবনে তিন সদস্যর দলে ছিলেন আহমেদ কাওছার (নোবিপ্রবি)এস কে ফয়সাল(নোবিপ্রবি)এবং অভিষেক দাস (চুয়েট)

এর আগেও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তায় পুরুষ্কার বিজয়ী আহমেদ কাওছার বলেন, গত এক মাস ধরে চীনের উহান শহরের মোট ১৩ হাজার করোনা আক্রান্ত রোগীর ডেটা বিশ্লেষন করে এমন একটি এ.আই প্রোগ্রাম নিয়ে কাজ করছিলেন তিনি

যেটি সম্পর্নভাবে একজন ডাক্তারের মত কাজ করতে সক্ষম হবে।একজন ডাক্তার ঠিক যে যে লক্ষনগুলো দেখে একজন রোগীকে বলে যে তার করোনা হতে পারে কি না এবং তার করোনা টেষ্ট করার প্রয়োজন আছে কি না ? ঠিক একইভাবে কাজ করবে তাদের এই এ.আই প্রোগ্রামটি, তিনি আরো বলেন তাদের এই প্রোগ্রামী এমন ভাবে তৈরি করা হয়েছে যে এটি সূক্ষ থেকে সূক্ষ লক্ষনগুলোও সে ধরতে পারবে।

এ ছাড়া এ মেশিন লার্নিং এর অন্য যে সকল যোগ্যতা রয়েছে তা হলো

১। বাংলা স্পিস টু টেক্সট এর মাধ্যমে এর সাথে যোগাযোগ করা সম্ভ হবে
২। বাংলা ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং এবং মেশিং লার্নিং এর সাহায্যে টেক্সট কে আবার এনালাইসি করা যাবে
৩। রিয়েল টাইম মেশিং লার্নিং & স্টাটিস্টিক্যাল লার্নিং এর সাহায্যে কোন পেশেন্টের করোনার প্রভাবিলিটি নির্ণয় করবে। যেটি উহানের ১৩ হাজার ডাটার উপর বেস করে ডেভেলপড করা হয়েছে।
৪। সম্ভাবনার উপর বেইস করে পেশেন্টকে একটি সাজেশন প্রোভাইড করতে পারবে
৫। ডীপ লার্নিং এন্ড বাংলা ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং করে ডাক্তার করোনা একজন রোগির সাথে সরাসরি কথা বলতে পারবে। তাকে দেওয়া হয়েছে ৬ ধরনের ১৬ হাজার ইমোশন ডিটেকশন ডাটা, রোগির ইমোশন বুঝারও ট্রাই করবে। আপনার সাথে কবিতা, গান, গল্প বলতে পারবে। এক কথা কোন করোনা রোগি বা হোম কোরানেটাইনে এইটি আপনার বন্ধু হয়ে থাকবে।
৬/এটি একজন রোগীর সাথে সরাসরি বাংলা ভাষায় কথা বলবে এবং করোনা সম্পর্কে যে কোন প্রশ্নের উত্তর এবং ইনফরমেশন (নাম্বার, পুলিশ লাইন, আপডেট ইনফরমেশন ইত্যাদি) দিবে ।

আহমেদ কাওছার যোগ করে বলেন তিনি মনে করছেন এই এ.আই প্রোগ্রাম ব্যবহারের মাধ্যমে করোনার সংক্রামন হার অনেক অংশে কমানো সম্ভব ও নতুন করোনা রোগী সনাক্ত করার ক্ষেত্রেও এটি অনেক বড় ভূমিকা পালন করতে পারে.এছাড়াও ডাক্তারদের সুরক্ষার ক্ষেত্রেও অবদান রাখতে পারবে এ ছাড়া প্রোগ্রামটি বর্তমান পরিস্থিতে একজন ডাক্তারের হেল্পিং হ্যান্ড হিসেবে কাজ করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে প্রোগ্রামটি চীনের রোগীদের আক্রান্ত হওয়ার উপসর্গগুলো তৈরি হলেও বাংলাদেশের আবহাওয়া ও পরিস্থিতি আলোকে উপযোগী। পর্যায়ক্রমে, তারা তাদের ডাটাবেইজ এ বাংলাদেশী রোগীদের ডাটাও অন্তর্ভুক্ত করবেন।

তবে এটিকে বাজারে মানুষের ব্যবহার উপযোগী করে বের করার জন্য প্রয়োজন বিশাক অংকের অর্থ যা তাদের পক্ষে সরবারহ করা সম্ভব হচ্ছে না বলেও জানান তিনি, এ ক্ষেত্রে সমাজের বিত্তবান শ্রেণির সাহায্য কামনা করেন আহমেদ কাওছার

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: