প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

ফুলবাড়ীতে নৈশ প্রহরীকে কুপিয়ে হত্যা ॥

২৩ জানুয়ারি ২০২০, ৫:১৯:৩৪

এহসান প্লুটো,ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) সংবাদদাতা;
দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার ৪নং বেতদিঘী ইউনিয়নের আরজি শাহপুর গ্রামের নন্দীগ্রাম স্কুলের পশ্চিম দিকের পুকুরের নৈশ প্রহরী কে ক’পিয়ে হত্যা করেছে দুবৃত্তরা।
গত বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার বেতদিঘী ইউনিয়নের নন্দিগ্রাম ঈদগাহ মাঠ সংলগ্ন একটি তামিম গ্রুপের লিজ নেওয়া মৎস্য পুকুর পাড়ে এই হত্যা কান্ডের ঘটনাটি ঘটে।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ওই পুকুর পাড় থেকে নিহত নৈশ প্রহরী বাদশা মিয়ার মৃতদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।
নিহত নৈশ প্রহরি বাদশা মিয়া উপজেলার আরজি সাহাপুর গ্রামের মৃত আব্দুস সামাদের ছেলে বলে জানা যায়। সে গত এক বছর থেকে নন্দীগ্রাম স্কুলের পশ্চিম দিকের তামিম এ্যাগ্রোফার্ম এর একটি ভাড়া করা মৎস্য পুকুরে নৈশ প্রহরির কাজ করতো। তামিম এ্যাগ্রোফার্ম এর মালিক সাহাজাহান মিয়া বলেন গত এক বছর থেকে বাদশা মিয়া নৈশ প্রহরির কাজ করে আসছে, গত বুধবার দিবাগত রাতে সে পাহারা দেয়ার সময় কে বা কাহারা তাকে আক্রমন করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে। নন্দিগ্রাম ঈদগাহ মাঠ এলাকার বাসিন্দা শাখাওয়াৎ হোসেন বলেন,বৃহস্পতিবার সকালে গ্রামের গৃহবধুরা মাঠে কাজ করতে গিয়ে নৈশ প্রহরি বাদশার মৃতদেহটি দেখতে পায়। একই এলাকার বাসীন্দা ও পুকুরটির মালিক মৃত কফিল উদ্দিনের ছেলে আব্দুস ছালাম বলেন, ওই পুকুরটি তিনি গত দুই বছর থেকে তামিম এ্যাগ্রোফার্মের নিকট মৎস্য চাষের জন্য ভাড়া দিয়েছেন। এর পর থেকে তামিম এ্যাগ্রোফার্ম ওই পুকুরে মৎস্য চাষ করে আসছে। তিনি বলেন বুধবার দিবাগত রাতে নন্দ্রিগ্রাম বিদ্যালয়টির একটি বার্ষিক অনুষ্ঠান ছিল, সেখানে সারারাত মাইক বেজেছে, এজন্য তারা কোন শব্দও শুনতে পায়নি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ফুলবাড়ী সার্কেল) মিয়া আশিষ বীন হাসান বলেন, স্থানীয় চেয়ারম্যানের মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নিহত বাদশা মিয়ার মৃতদেহটি উদ্ধার করে, ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি বলেন দুরবৃত্তরা নৈশ প্রহরির মাথা ঘাড়ে উপর্যপুরি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে । তিনি বলেন ঘটনাটি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: