শিরোনাম
     করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ০ ◈ আজকে মৃত্যু : ০ ◈ মোট সুস্থ্য : ১৩৬,৮৩৯
প্রচ্ছদ / শিক্ষা / বিস্তারিত

বরিশাল কলেজের নাম বদলের প্রস্তাবের প্রতিবাদে কর্মসূচি অব্যাহত

১২ জুলাই ২০২০, ৬:৫৭:১৬

সরকারি বরিশাল কলেজের নাম অপরিবর্তিত রাখার দাবিতে জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন ওই কলেজের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা।

রোববার (১২ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টায় জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমানের কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হয়।

এর আগে গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় বরিশাল নগরীর সদর রোডের অশ্বিনী কুমার হলের সামনে বৈরী আবহওয়া উপেক্ষা করে এ মানববন্ধন করা হয়। কলেজের সাবেক শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা দুই দিন ধরে নানা কর্মসূচির মাধ‌্যমে কলেজের নাম পরিবর্তনের চেষ্টার প্রতিবাদ জানান।

আজ বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আসলাম তালুকদার অনিকের নেতৃত্বে স্মারকলিপি দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন সরকারি বরিশাল কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি ও মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট এ কে এম জাহাঙ্গীর, কলেজের সাবেক এজিএস ও জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট হাফিজ আহমেদ বাবলু, সাংবাদিক আলম রায়হান, ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ সাঈদ আহমেদ মান্না, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজিব হোসেন খান, সরকারি বরিশাল কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক রেজাউল করিম রেজাসহ অনেকে।

সরকারি বরিশাল কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি এ কে এম জাহাঙ্গীর বলেন, ‘সরকারি বরিশাল কলেজের নামের সাথে বরিশালের অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে। এই কলেজের নাম নিয়ে চক্রান্ত শুরু হয়েছে। অশ্বিনী কুমার দত্তের নামে কলেজের নামকরণের প্রস্তাব বাতিল করে আগের নাম বহাল রাখা না হলে বরিশালের ছাত্রসমাজের মাঝে ক্ষোভের বিস্ফোরণ ঘটবে, যা জেলা প্রশাসন সামাল দিতে পারবেন না। কলেজের নাম অপরিবর্তিত রেখে অশ্বিনী কুমার দত্তের নামে কলেজের ছাত্র হোস্টেলের নামকরণ কিংবা তার নামে জাদুঘর নির্মাণ করা যেতে পারে।

কলেজের নাম পরিবর্তনের প্রস্তুাব শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানোর কথা স্বীকার করে জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমান বলেন, ‘অশ্বিনী কুমার দত্তের অনেক ভক্ত আছে বরিশালে। প্রতি বছর অশ্বিনী কুমার দত্তের জন্ম ও মৃত্যুবার্ষিকীতে স্থানীয় সুশীল সমাজ এবং সাহিত্য ও সাংস্কৃতিপ্রেমীরা দাবি করেন, তার বাড়িতে প্রতিষ্ঠিত কলেজের নামকরণ তার নামে হোক। এখন মন্ত্রণালয় যদি মনে করে কলেজের নাম অশ্বিনী কুমার দত্তের নামে হবে, সেটা তারা করবে অথবা আগের নামও বহাল রাখতে পারে। এটা মন্ত্রণালয়ের ব্যাপার। আমার দায়িত্ব আজকে যারা স্মারকলিপি দিয়েছেন তাদের দাবি মন্ত্রণালয়ে পৌঁছে দেওয়া।‘

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: