করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ২,৬৫৪ ◈ আজকে মৃত্যু : ৩৩ ◈ মোট সুস্থ্য : ১৪১,৭৫০
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

ভিক্ষু মিয়ার রহস্যময় মৃত্যু!

৫ জুলাই ২০২০, ২:০৪:৫৭

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি: তাড়াইল উপজেলায় ভিক্ষু মিয়ার মৃত্যু নিয়ে জনমনে বিভ্রান্ত সৃষ্টি হয়েছে। ভিক্ষু মিয়া সাচাইল গ্রামের হাফিজ মুন্সীর ছেলে, তিনি সাররং সাইফুল মিয়ার বাসায় ভাড়া থাকতেন। গত বুধবার সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় যে, ভিক্ষু মিয়ার লাশ বিছানার উপর দাড়ানো অবস্থায় আছে। গলায় উড়না পেছানো ও উড়নার অপর প্রান্ত আড়ার সাথে বাধা, বিছানার উপর প্লাস্টিকের হাতল ওয়ালা চেয়ার দাড়ানো অবস্থায় ছিল। তার পায়ের সমানভাবে বিছানার উপর আছে। সাধারনভাবে ধারণা করা হচ্ছে পায়ের তালা বিছানায় সমানভাবে লাগানো অবস্থায় কেউ ফাসিতে মৃত্যুবরণ করতে পারে না। তার গোপনাংগ ফুলা ছিল। গোপনাংগে আঘাতের কারনে মৃত্যুবরণ করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ভিক্ষু মিয়ার ভগ্নিপতি সবুজ মিয়া আমাদের বলেন যে, ২০১৫ সালে রুনার সাবেক স্বামীকে নিয়ে ভিক্ষু মিয়ার বাসা ভাড়া নেয়। রুনার সাবেক স্বামী ঢাকা গেলে, রুনা তার স্বামী কে তালাক দেয় ও কিছুদিন যেতে না যেতেই নাটকীয়ভাবে ভিক্ষু মিয়া কে বিয়ে করে। বিয়ের কিছুদিন পর রুণা সু-কৌশলে ভিক্ষুর বাসা নিজ নামে লিখে নেয় ও অন্যত্র বিক্রয় করেন। বাসা বিক্রির প্রায় ২০/৩০ লক্ষ টাকা আত্নসাত করে।পরকীয়ার জেরে প্রায়ই স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হত। ভিক্ষু মিয়াকে প্রায়ই তার গোপনাংগে আঘাত করে মেরে ফেলবে বলবে রুণা হুমকি দিত। স্থানীয় লোকদের ধারনা রুনার সাথে বাড়িওয়ালার ছোট ভাই লিটন এর পরকীয়া আছে। এই বিষয়ে তাড়াইল থানায় অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে। এস আই রাজিব ঘটনাটি তদন্ত করছেন।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: