প্রচ্ছদ / Uncategorized / বিস্তারিত

মডার্ন হারবালকে ৭৫ লাখ টাকা জরিমানা

৩ জুলাই ২০১৯, ৫:০৭:৪৯

কোনো মান নিয়ন্ত্রণ ছাড়াই ওষুধ উৎপাদন করে তা বাজারজাত করার অপরাধে মডার্ন হারবাল গ্রুপকে ৭৫ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটিকে সাময়িকভাবে সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে রাজধানীর ডেমরার কোনাপাড়া এলাকায় মডার্ন হারবালের কারখানার অভিযান চালিয়ে এই জরিমানা করা হয়।

অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছেন র‌্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী হাকিম সারোয়ার আলম। অভিযানে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সাংবাদিকদের সারোয়ার আলম বলেন, এই প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৪০০টি পণ্য বাজারে রয়েছে। এসব পণ্য উৎপাদন করতে গিয়ে যেসব রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়েছে, এর কোনোটারই মেয়াদ নেই। কোম্পানির মান নিয়ন্ত্রণ পরীক্ষাগারে (কোয়ালিটি কন্ট্রোল ল্যাব) অভিযান চালিয়ে দেখা গেছে, এখানে সাত, আট ও নয় বছর আগে মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে—এমন রাসায়নিকও আছে। এমনকি কয়েক বছর ধরে প্রতিষ্ঠানটি যেসব পণ্য উৎপাদন করেছে, তার কোনোটারই ব্যাচ ম্যানুফ্যাকচারিং রেকর্ড (বিএমআর) নেই। একটি পণ্য উৎপাদন করতে গিয়ে যে ধরনের রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়েছে, সেটার গুণগত মান যাচাই করা হয়েছে, কারা এসব পণ্য তৈরি করেছেন—সব তথ্য এই বিএমআরের মধ্যে থাকে।

একই ল্যাবে খাবারের মান নিয়ন্ত্রণ ও জীবন রক্ষাকারী ওষুধের মান নিয়ন্ত্রণ যাচাইয়ের কোনো সুযোগ নেই। অথচ প্রতিষ্ঠানটি একই ল্যাবে এমনটাই করে আসছে। র‌্যাবের প্রশ্ন ছিল, আজকে যে ধরনের পণ্য উৎপাদন করেছেন, সেগুলোর নমুনা কোথায়? তবে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ তারা তা দেখাতে পারেননি। তাঁরা জানান, কাগজে লেখা আছে।

কোনো মান নিয়ন্ত্রণ ছাড়াই ওষুধ উৎপাদন করে তা বাজারজাত করার দায়ে মডার্ন হারবাল গ্রুপকে ৭৫ লাখ টাকা জরিমানা করে কারখানা সাময়িকভাবে সিলগালা করে দিয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।
এখানে অভিযান শুরুর পর প্রতিষ্ঠানটির উপদেষ্টা তারিক বিন হোসেন ঘটনাস্থলে ছিলেন। তাঁর কাছে এই বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমরা সবকিছুরই মান নিয়ন্ত্রণ করেছি। তবে কেন যেন মনে হচ্ছে, এর পেছনে ষড়যন্ত্র আছে।’ কারা ষড়যন্ত্র করছে—এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বাইরের কেউ করছেন।’ তাহলে আপনারা বিএমআর দেখাতে পারছেন না কেন—সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের কোনো জবাব তিনি দিতে পারেননি।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: