fbpx
প্রচ্ছদ / শিক্ষা / বিস্তারিত

মো. দ্বীন ইসলাম

মতলব উত্তর (চাঁদপুর)

মতলব উত্তরের ১৮০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বৃহস্পতিবার কোন ক্লাশ হয়নি

১৭ অক্টোবর ২০১৯, ১১:০৬:২২

১৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার পূর্নদিবস কর্মবিরতির কারনে মতলব উত্তর উপজেলার ১৮০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কোন ক্লাশ হয়নি। প্রাথমিক বিদ্যাল প্রধান ও সহকারী শিক্ষকদের বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের আন্দোলনকারী ১৪ সংগঠনের পূর্ব ঘোষনা মোতাবেক শিক্ষকরা যথাসময়ে স্কুলে যায় কিন্তু কোন ক্লাশ না করে কর্মবিরতিতে অংশ নেয়। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার পর থেকে মতলব উত্তর উপজেরার বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয় ঘুরে এমন দৃশ্যই দেখা যায়।
সরেজমিনে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের মতলব উত্তর উপজেলা শাখার আহবায়ক ও সাদুল্যাপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জহিরুল ইসলাম, যুগ্ম-আহবায়ক ও ঠেটালিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল হান্নান, সদস্য সচিব ও ফরাজীকান্দি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুল বাতেন প্রধান, দক্ষিন ব্যাসদী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৬৬এখলাছপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৬৫এখলাছপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, চরকালিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়, ছোট চরকালিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বেশকয়টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ঘুরে শিক্ষকদেরকে পূর্নদিবস কর্মসূচীতে অংশ নিতে দেখা গিয়েছে।

বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের মতলব উত্তর উপজেলা শাখার সদস্য সচিব ও ফরাজীকান্দি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. আব্দুল বাতেন প্রধান জানায়, সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেড এবং প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডে বেতন স্কেল নির্ধারণের দাবিতে প্রাথমিক শিক্ষকদের ১৪টি সংগঠন ঐক্যবদ্ধ হয়ে সরকারকে ৭ দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছিলাম। আমরা মতলব উত্তর উপজেলায় কর্মসূচীগুলো পালন করলাম এবং সর্বশেষ আজ বৃহস্পতিবার পূর্ন দিবস কর্মবিরতি শেষ করলাম। আমাদের দাবীর যৌক্তিকতা ন্যায্য বিধায় ইতিপূর্বেই বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ তাদের নির্বাচনী ইস্তেহারে বেতন বৈষম্যের বিষয়টি অর্ন্তভুক্ত করেন।
মতলব উত্তর উপজেলার শিক্ষক নেতারা আরো জানান, আমাদের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত ছিল ১৩ অক্টোবরের মধ্যে দাবি আদায় না হলে ১৪ অক্টোবর শিক্ষকদের নিজ নিজ বিদ্যালয়ে সকাল ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত কর্মবিরতি পালন করা। ১৫ অক্টোবর একই কর্মসূচি এবং ১৬ অক্টোবর নিজ নিজ বিদ্যালয়ে অর্ধ দিবস কর্মবিরতি। পরবর্তীতে ১৭ অক্টোবর নিজ নিজ বিদ্যালয়ে পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করার কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। সেই কর্মসূচী মোতাবেক আমরা কর্মসূচীগুলো যথাযথভাবে পালন করি। এরপরেও দাবি আদায় না হলে আগামী ২৩ অক্টোবর ঢাকায় মহাসমাবেশের মাধ্যমে পরবর্তী লাগাতার কর্মসূচি দেওয়ারও ঘোষণা কেন্দ্রীয় নেতারা। এটা আমাদের অস্তীত্বের লড়াই তাই আমরা ঢাকার মহাসমাবেশ ও পরবর্তী কর্মসূচীর জন্য প্রস্তুত রয়েছি।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: