প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

মতলব উত্তরে পার্কের দর্শণার্থী শিক্ষার্থীকে ধর্ষনের চেষ্টা

১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৫:২৫:১৪

মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর পৌরসভার জর্জনগরে অবস্থিত শামীমা রাতুল শিশু পার্কে দর্শণার্থী ৯ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে ধর্ষনের চেষ্টা করে পার্কের কর্মচারী। ‘৯৯৯’ নম্বরে কল করে রেহাই পায় ওই ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী। অপরাধী পলাতক রয়েছে। অপরাধীকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
গত ১৪ ফেব্রুয়ারী বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে দুপুর ১২টায় ছোট দুইকে নিয়ে ঘুরতে যায় ওই শিক্ষার্থী পার্কে। ১.১৫ মিনিটের দিকে পার্কের ভিতরের কফি হাউজের দোতলায় বিশ্রামে জন্য গেলে কর্মচারী রিপন গাজী (৩৫) দুই শিশুকে ধমক দিয়ে ভয় দেখিয়ে নিচে নামিয়ে দিয়ে ওই শিক্ষার্থী জোর পূর্বক আটকে রেখে ইচ্ছার বিরুদ্ধে যৌন কামনা চরিতার্থ করার উদ্দেশ্যে শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে স্পর্শ করাসহ মুখে, গালে চুম্বন করা গালে কামড় দিয়ে ধর্ষনের চেষ্টা করে।
ওই ছাত্রীর ডাক-চিৎকারে পার্কে ও আশপাশে থাকা লোকজন এগিয়ে গেলে রিপন গাজী দৌড়ে পারিয়ে যায়।
স্থানীয় সোহরাব মিয়াজী ‘৯৯৯’ নম্বরে কল দিলে মতলব উত্তর থানা পুলিশ ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে।
ভুক্তভোগীর বাবা ওয়াদুদ মোল্লা বাদী হয়ে উপজেলার নিজ ছেংগারচর গ্রামের মো. নুরু গাজীর ছেলে মো. রিপন গাজীকে আসামী করে মতলব উত্তর থানায় শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০০০ (সংশোধিত ২০০৩ এর ০৯ (৪) (খ) ধারায় ‘জোরপূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করার অপরাধ’ রুজু করা করে।
মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নাসির উদ্দিন মৃধা বলেন, ঘটনার সংবাদ পেয়ে সাথে সাথে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় পুলিশ। এ ব্যাপারে জোরপূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করার অপরাধ ধারায় মামলা নেয়া হয়েছে। আসামীকে আটকের জন্য চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: