করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ২,৭৬৬ ◈ আজকে মৃত্যু : ৩৪ ◈ মোট সুস্থ্য : ১৫৬,৬২৩
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

রাজগঞ্জ বাজারে নতুন পেঁয়াজ উঠেছে, তবুও কমেনি দাম

১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:০২:০৫

উত্তম চক্রবর্তী,মণিরামপুর(যশোর)অফিস৷৷ যশোরের রাজগঞ্জ বাজারে নতুন পেঁয়াজ উঠতে শুরু করেছে। কিন্তু দাম এখনো কম হয়নি। প্রতিকেজি দেশি নতুন পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকায় ও পুরাতন পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৪০ টাকা দরে। রাজগঞ্জে বাজার দরের এই অবস্থা চলছে প্রায় ৫/৬দিন ধরে।

সোমবার সকালে রাজগঞ্জ বাজারে সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়- পেঁয়াজসহ অন্যান্য সবজির দাম এখনো চড়া।
জানাযায়- পুরাতন পেঁয়াজের সরবরাহ কমে যাওয়ায় দাম সবচেয়ে বেশি এবং অন্যদিকে নতুন পেঁয়াজের সরবরাহ থাকলেও বাজারে এর দাম তেমন কমেনি। বাজারে এখনও পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি থাকায় এখনো ক্রয় ক্ষমতার বাইরে রয়েছে বলে জানান কয়েক জন ক্রেতা। তারা বলেন, বর্তমানে প্রতিকেজি পেঁয়াজের বাজার দর ৫০ টাকার বেশি থাকার কথা নয়। অথচ পেঁয়াজ কিনে খেতে হচ্ছে ২শত টাকার উপরে। সবচেয়ে বেশি সমস্যা হচ্ছে অল্প আয়ের মানুষের। তারা অতিরিক্ত দামের কারণে সামান্য পরিমানে পেঁয়াজ ক্রয় করছেন। তবে নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসলেও পেঁয়াজের বাজার দরে তেমন প্রভাব পড়েনি। পেঁয়াজের বাজার দর কমতে আরো ১৫ থেকে ২০ দিন সময় লাগবে বলে জানান রাজগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ীরা।

সোমবার (রাজগঞ্জ বাজারের হাটের দিন) সকালে রাজগঞ্জ বাজারে পুরাতন দেশি পেঁয়াজ (ছোট ও বড় ) ২০০ থেকে ২৪০, এবং নতুন পেঁয়াজ ১৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করেতে দেখা গেছে।
এদিকে বাজারে সবজির সরবরাহ বেড়েছে। কিন্তু দাম এখনো বাড়তি রয়েছে। প্রতিকেজি ফুলকপি বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা দরে, বেগুন ৪০/৫০ টাকা, লাউ পিসপ্রতি ৫০ টাকা, বাঁধাকপি প্রতিকেজি ৪০ টাকা, সিম ৫০ টাকা, নতুন আলু ৫০ টাকা, টমেটো ৮০ টাকা, মূলা ২০ টাকা এবং বিভিন্ন ধরনের শাক বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা থেকে ৫০ টাকা কেজি দরে।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: