fbpx
প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

রাজনৈতিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি ছাত্রদলের

১৮ এপ্রিল ২০১৯, ৯:৩১:০২

রাবি প্রতিনিধি:
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজনৈতিক সংগঠনের কর্মকা-ের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শাখা ছাত্রদল। বৃহস্পতিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর দপ্তরে এই স্মারকলিপি গ্রহণ করেন প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, ‘দীর্ঘদিন যাবত ক্যাম্পাসে সকল রাজনৈতিক সংগঠনের কর্মকা-ের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। বর্তমানে দেশের ও ক্যাম্পাসের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতিতে যা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। এমতাবস্থায় রাবি শাখা জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল দেশের বৃহত্তর ক্যাম্পাসে অবিলম্বে সকল রাজনৈতিক ছাত্রসংগঠনের কর্মকা-ের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানাচ্ছি।’

আরও উল্লেখ করা হয় ‘সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবন-১ সংলগ্ন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল রাবি শাখার দলীয় টেন্ট ভেঙ্গে ফেলে শহীদ বুদ্ধিজীবী চত্বর নির্মাণ করা হয়েছে। শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা রেখে রাবি ক্যাম্পাসের সকল রাজনৈতিক ছাত্রসংগঠনের সহাবস্থান নিশ্চিত করার লক্ষ্যে অতিদ্রুত জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল রাবি শাখা দলীয় টেন্ট পুনঃনির্মানের জোর দাবি জানাচ্ছি।’

ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সামসুদ্দীন চৌধুরী সানিন বলেন, ‘ক্যাম্পাসে সকল সংগঠনের সহাবস্থান নিশ্চিত করতে সকলকে সমান সুযোগ দিতে হবে। এজন্য আমাদের দলীয় টেন্ট পুনঃনির্মান করার জন্য প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়েছি।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, ‘তারা (ছাত্রদল) বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংগঠন। তাদের দলীয় টেন্ট অনেক আগে ছিল, যে কারণেই হোক তা এখন নেই। তাই যে আবেদন জানিয়েছে সে বিষয়টি আমরা দেখবো।’

প্রক্টর আরও বলেন, ‘ছাত্র সংগঠনের কর্মকা-ের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের যে দাবি ছাত্রদল জানিয়েছে তা প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করা হবে। দাবি যৌক্তিক হলে পরবর্তীতে তা সিন্ডিকেটে আলোচনা করা হবে। এবং সিন্ডিকেটে পাশ হলে তা কার্যকর করা হবে।’

স্মারকলিপি প্রদানের সময় রাবি শাখা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজু আহমেন মামুন, প্রচার সম্পাদক মেহেদী হাসান, সদস্য তুষার শেখ, জহিরুল ইসলাম, ফারুক হোসেন, আব্দুল লতিফ স¤্রাট, এম এইচ মারুফ, একরামুল হক।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: