fbpx
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

ভাঙ্গা ঝুপড়ি, ভেজা বিছানা

রাজাপুরে জরাজীর্ণ বসতঘরে মানবেতর জীবন-যাপন করছে অসহায় পরিবার

১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩:১০:৫১

কামরুল হাসান মুরাদ::
ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলায় জরাজীর্ণ বসতঘরে মানবেতর জীবন-যাপন করছে দিনমজুরের পরিবার। জানা যায়, উপজেলার শুক্তাগড় ইউনিয়নের সাংগর গ্রামের মৃত হাচেন আলী মোল্লার ছেলে আঃ কাদের মোল্লার পরিবার একটি মোটামুটি ভালো আশ্রয়স্থল ্এর অভাবে বহু বছর ধরে জরাজীর্ণ বসতঘরে মানবেতর জীবন-যাপন করে আসছেন। এলাকাবাসী জানান, কাদের মোল্লা একজন গরীব অসহায় লোক। দিনমজুরী কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে।বসত ভিটা ছাড়া তার নিজের কোন ধানী জমি নেই। তার দুই ছেলে ও এক মেয়ে তারা সবাই লেখাপড়া করে। বর্তমানে কাদের মোল্লার বসত ঘরখানা খুবই জরাজীর্ন অবস্থায় আছে। বসত ঘরের আংশিক ভাংগা পুরাতন টিন ও পলিথিন দিয়ে ঢাকা। বর্ষার সময় ঘরের ছাউনী থেকে পানি পড়ে বাশঁ, খুটি, বিছানা সহ সব কিছু ভিজে নষ্ট হয়ে যায়। একটু বন্যা হলেই ঘরটি পরে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ঝড় বন্যা হলে অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিতে হয় কাদের মোল্লার পরিবারের। এঅবস্থায় কাদের মোল্লা তার স্ত্রী, ছেলে মেয়েকে নিয়ে খুবই মানবেতর ভাবে জরাজীর্ণ বসতঘরে জীবন-যাপন করছেন।

আঃ কাদের মোল্লা জানান, বর্ষা কালে ঘরে পানি পড়ে বলে সারা রাত ঘরের এক কোনায় জেগে রাত কাটাতে হয় পরিবারের সবার। আর এই ভেজা স্যাঁতস্যাঁতে পরিবেশে বেশি করে অসুস্থ করে দিচ্ছে তাদের। অর্থিক অবস্থা ভাল না হওয়ায় ঠিক মত ঔষুধ কেনা হয় না তাদের। বর্তমানো তাদের ভাঙ্গা ঝুপড়ি নিয়ে বেশ চিন্তিত। কারন রোদ বৃষ্টি কোন মৌসুমেই ঠিক মত থাকতে পারেন না। খেয়ে না খেয়ে থাকা যায় কিন্তু আশ্রয়স্থল যদি ঠিক না থাকে তাহলে দিন রাত পার করা খুব মুসকিল । স্থানীয় মেম্বার-চেয়ারম্যানের কাছে বারবার একটি ঘরের জন্য বলা হলেও আজ পর্যন্ত ব্যবস্থা হয় নাই।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: