করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ২,৪২৩ ◈ আজকে মৃত্যু : ৩৫ ◈ মোট সুস্থ্য : ১২,১৬১
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

রাজারহাটে অপহৃত মাদরাসার ছাত্রীকে উদ্ধারের দাবিতে মানববন্ধন

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৭:৩৩:৩৬

এ.এস.লিমন,রাজারহাট(কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: –
কুড়িগ্রামের রাজারহাটে অপহরণের এক মাস অতিবাহিত হলেও ফতেখাঁ কারামতিয়া দাখিল মাদরাসার ছাত্রীকে উদ্ধার করতে না পারায় মানববন্ধন করেছেন মাদরাসার শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী। গতকাল রবিবার ফতেখাঁ কারামতিয়া দাখিল মাদরাসার মাঠে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ফতেখাঁ কারামতিয়া দাখিল মাদরার সুপারেনন্টেন মো.গোলাম রব্বানী, সহকারী শিক্ষক মো.মাহফুজার রহমানসহ এলাকাবাসী ও মাদরাসার বিভিন্ন শ্রেণির কয়েকশত শিক্ষার্থীবৃন্দ। এ সময় বক্তারা অভিযোগ করে বলেন গত ১৫ জানুয়ারী বুধবার সন্ধ্যায় নবম শ্রেণির মাদরাসা ছাত্রীকে বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল যোগে তুলে নিয়ে যায় স্থানীয় মোঃ আব্দুল আজিত (৪৮) এর পুত্র মোঃ রাশেদুল ইসলাম ওরেফ বাবু (২৫)সহ বেশ কয়েকজন। এ ঘটনায় অপহৃত ছাত্রীর বাবা মোঃ আবু কালাম রাজারহাট থানায় মো. রাশেদুল ইসলাম ওরফে বাবুকে প্রধান আসামী করে চারজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলেও এখনো ওই ছাত্রীকে উদ্ধার ও অপহরণকারীদেরকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। অবিলম্বে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে অপহরণকারীদেরকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তাঁরা। ওই ছাত্রীর বাবা মানববন্ধন অনুষ্ঠানে বলেন, আমার মেয়ে মোছা: রতœা খাতুন (১৫) মাদরাসা যাওয়া -আসার পথে মোঃ রাশেদুল ইসলাম ওরেফ বাবু (২৫) বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন দেখাইয়া আসছিল এবং প্রায় সময় উত্তক্তা করত। এ বিষয়টি আমার মেয়ে আমাকে ও আমার পরিবারকে অবগত করলে রাশেদুল ইসলাম বাবু (২৫) ক্ষিপ্ত হয়ে অজ্ঞাত ২/৩ জনসহ মোটরসাইকেল যোগে অপহরণ করে আমার মেয়েকে নিয়ে যায়। বর্তমানে আমি ও আমার পরিবার মেয়েকে হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছি। তাই আমার মেয়েকে উদ্ধার করে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে দ্রুত বিচার আইনে শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানাচ্ছি। এ ব্যাপারে রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ কৃষ্ণ কুমার সরকার বলেন, অপহৃত ছাত্রীকে উদ্ধারের জোড়ঁ অভিযান চলছে যে কোন সময় অপহরণকারীদেরকে গ্রেপ্তার করা হবে। এ ঘটনায় রাজারহাট থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। যাহার মামলা নং- ০৮, তাং-১৪-০২-২০২০ইং

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: