fbpx
প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

স্পেনে গাজীপুরবাসী বার্ষিক বনভোজন অনুষ্ঠিত

১৮ জুলাই ২০১৯, ৭:৫২:১৪

কবির আল মাহমুদ, স্পেন :

গ্রীষ্মের দাবাদাহে ব্যাস্ত মাদ্রিদ যখন অতিষ্ট, পুঞ্জিভুত শ্রাবনের অস্থির মেঘেরা যখন আকাশেই ঘুরাফিরা করে চলে যায় অন্য আকাশে, ঠিক এমনি এক সময় প্রাত্যহিক যান্ত্রিক জীবন থেকে একদিনের পরিত্রানের আশায় গাজীপুর জেলাবাসী আয়োজন করে বার্ষিক বনভোজন ২০১৯। ব্যস্ত নগরীতে বনভোজন কেবল মাত্র নগর পীড়নের পরিত্রানই নয়, এক মিলন মেলাও বটে। ১৭ জুলাই বুধবার দিনটি ছিল প্রবাসী গাজীপুরবাসীদের জন্য এক মহা আনন্দের। লক্ষনীয় ভীড় আর অসীম উল্লাসে ফেটে পরা প্রবাসী গাজীপুরবাসী প্রানভরে উপভোগ করে পারস্পরিক সখ্যতা, মুখরোচক খাবার, খেলাধুলা প্রানবন্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আর রাফেল ড্র।

দিনের শুরুতেই বাংলাদেশী অধ্যুষিত লাভাপিয়েসের এম্বাখাদরেসে মিলিত হয় প্রবাসীরা। বনভোজনের নির্ধারিত স্থান মাদ্রিদ থেকে ছয় শত কিলোমিটার দূরে দৃষ্টিনন্দন সমুদ্র সৈকত পেনিসকলা বিচে গাজীপুরবাসীরা আয়োজন করলেও অন্যান্য জেলার প্রবাসীরাও এতে অংশ নেন।
ছয় ঘণ্টা পর পৌছান সেখানে। যাত্রাপথে গান, কৌতুক ও ধাঁধা পরিবেশন করে মাতিয়ে রাখেন,কণ্ঠশিল্পী ইরা ও রিপন।
প্রবাসে ব্যস্ত জীবনের ক্লান্তি দূর করে প্রশান্তি নিতে এই সমুদ্র ভ্রমণ ও বনভোজনে উপস্থিত হয়েছিলেন দলমত-নির্বিশেষে অনেক প্রবাসী। এতে নারী ও শিশুদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। অংশগ্রহণকারীরা সমুদ্র সৈকতে দুপুরের খাবার খান। হরেক পদের মুখরোচক বাংলা খাবার খেয়ে সবাই তৃপ্তির ঢেকুর তোলেন।

দ্বিতীয় পর্বে অসীম রিবেরি ক্রিশের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয় আকর্ষনীয় রাফেল ড্র ও সাংস্কৃতিক পর্বের মাঝে কিছুক্ষনের জন্য বিরতি নিয়ে শুরু হয় পরিচয় পর্ব। আগত অতিথি ও গাজীপুরবাসীর সকলের সাথে পরিচয় করিয়ে দেন নূর মোহাম্মদ রিপন। এই পর্বে যাদের বক্তব্য সকলের দৃষ্টি আকর্ষন করে তারা হলেন বিক্রমপুর মুন্সিগঞ্জ সমিতির সভাপতি মাহবুবুর রহমান ঝন্টু ,সাধারণ সম্পাদক রাসেল দেওয়ান, বৃহত্তর রংপুর এসোসিয়েশনের নেতা জাকিরুল ইসলাম জাকি, বৃহত্তর নোয়াখালী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু সায়েম মজুমদার ,কমিউনিটি নেতা শামীম আহমেদ, ফখরুল হাসান, আব্দুল্লাহ আল মামুন, নারায়ণগঞ্জ জেলা সমিতির ফতেহ আহমেদ, গ্রেটার সিলেটের আক্তার হোসেন ,মোয়াজ্জেম হোসেন ,শাহিন মিয়া ,শফিকুর রহমান, গাজীপুরবাসীদের মধ্যে কাজী আফতাব উদ্দিন, কাজী দেলোয়ার হোসেন, শরীফ আকন্দ, মোহাম্মদ আলমগীর ও মোঃ জলিল প্রমুখ। নেত্ববৃন্দের বক্তব্য শুনার জন্য ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অতিথিরা পেনিসেকলা বিচ সংলগ্ন প্যাভিলিয়নে ভীড় করতে দেখা যায়। শেষ পর্বে রাফেল ড্র বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করা হয়।

অসীম রিবেরি ক্রিশ ও নূর মোহাম্মদ রিপনের সমাপনী বক্তব্যের মাধ্যমে আগামী বনভোজনের আগাম নিমন্ত্রনের মধ্য দিয়ে শেষ হয়ে যায় গাজীপুর জেলাবাসীর বিগত ১০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে আকর্ষনীয় এবং প্রানবন্ত বনভোজন।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: