করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ১,৫৮৬ ◈ আজকে মৃত্যু : ১৪ ◈ মোট সুস্থ্য : ৩১২,০৬৫

হঠাৎ করেই রাজগঞ্জে লাগামহীন সবজির বাজার

১২ অক্টোবর ২০২০, ৯:৫৬:৩৯

উত্তম চক্রবর্তী,মণিরামপুর(যশোর)

হঠাৎ করেই রাজগঞ্জে অস্থির হয়ে পড়েছে সবজির বাজার। পেঁয়াজ, রসুন, কাঁচা মরিচ ও আলুর সাথে তাল মিলিয়ে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে শীতের আগাম সবজিসহ সব ধরণের সবজি।
দামের বড় ধরণের ব্যবধান রয়েছে পাইকারি এবং খুচরা বাজারেও। দোকানিরা যে যেমনি পারছেন হাতিয়ে নিচ্ছেন অধিক মুনাফা। বিক্রেতাদের চাহিদামত দাম দিতে হিমসিম খাচ্ছেন ক্রেতারা। নাভিশ্বাস উঠছে খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষের। গত একসপ্তাহের ব্যবধানে আলুর দাম কেজিতে ১৫ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৪৫-৫০ টাকায়।
ব্যবসায়ীরা বলছেন, অতিবৃষ্টির কারণে শীতের আগাম সবজি অনেকাংশ নষ্ট হওয়ায় মৌসুমের শুরুতে দাম বেশ চড়া।
সোমবার সরেজমিন রাজগঞ্জ বাজারে খুচরা দোকানঘুরে দেখা গেছে, আলু ৪৫-৫০ টাকা, কাঁচা মরিচ ১৯০-২০০ টাকা, পেঁয়াজ ৮০-৯০ টাকা, সিম ১২০ টাকা, রসুন ১০০ টাকা, টমেটো ৮০ টাকা, বেগুন ৭০ টাকা, কাঁচকলা ৫০ টাকা, করোলা ৭০ টাকা, পটল ৪৫ টাকা, পাতাকপি ৪০ টাকা ও পালংশাক ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া গ্রাম অঞ্চলের হাটগুলোতে আরো বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে সবজি।
মোবারকপুর গ্রামের বাসিন্দা মাহাবুর রহমান বলেন, সবজিসহ সব জিনিসের দাম এমনভাবে বেড়েছে যে বাজার করতে আসলে হিমসিম খেতে হচ্ছে।
রাজগঞ্জ পাইকারি কাঁচা বাজারের ব্যবসায়ীরা বলেন, মোকাম থেকে আলু না ছাড়ায় দাম বেড়েছে।
ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) খোরশেদ আলম চৌধুরী বলেন, দ্রব্যমূল্যের বাজারদর নিয়ন্ত্রণ রাখতে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: