করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ০ ◈ আজকে মৃত্যু : ০ ◈ মোট সুস্থ্য : ৭২১,৪৩৫
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

হরিঢালী ক্যাম্পের ইনচার্জ এস,আই মনিরুজ্জামানের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশের পর তদন্ত শুরু

১৬ এপ্রিল ২০২১, ১১:১৮:১০

কপিলমুনি (খুলনা) প্রতিনিধি ঃ
হরিঢালী পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এস আই মনিরুজ্জামান হাজরার বিরুদ্ধে রাতের আঁধারে অন্যের জমি প্রতি পক্ষকে জবর দখলে সহায়তার সংবাদ বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত হলে পুলিশ প্রশাসনের মধ্যে তোড়পাড় সৃষ্টি হয়। সংবাদ প্রকাশের পরপরই তার বিরুদ্ধে তদন্তে নেমে পড়ে উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা। গত ১৪ এপ্রিল বেলা সাড়ে ১১ টায় পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এজাজ শফি ভুক্তভোগী জাহাঙ্গাগীর মোড়লের বাড়ির পাশেই স্থানীয়দের উপস্থীতিতে ঘটনা তদন্ত করেন। এর আগে গত ১৩ এপ্রিল হরিঢালী ইউনিয়নের নোয়াকাঠী গ্রামের দিন মজুর ওই জাহাঙ্গীর মোড়ল হরিঢালী পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে ক্যাম্প ইনচার্জ মনিরুজ্জামান নানা অজুহাতে তার নিকট থেকে মোট ৯ হাজার টাকা হাতিয়ে নিলেও প্রতিপক্ষের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা সুবিধা নিয়ে তার পৈত্রিক ভোগ দখলীয় সম্পত্তি জবর দখলে সহায়তা করা সহ তাকে হয়রানী এবং ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগ করেন।

এদিকে মনিরুজ্জামান হাজরার বিরুদ্ধে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে একে একে তার বিরুদ্ধে নানা দুর্নীতি ও অনৈতিকতার অভিযোগ স্থানীয় সাংবাদিকদের দপ্তরে আসতে শুরু করেছে। প্রায় ১ বছরের বেশী সময় তিনি হরিঢালীর পুলিশ ক্যাম্পে যোগদান করেন। নিভৃত পল্লী জনপদ হরিঢালীর এ ক্যাম্পে যোগদানের পর তিনি বেপরোয়া হয়ে ওঠেন। ঘুষ দুর্নীতিতে তিনি আকন্ঠ নিমজ্জিত রয়েছেন। হরিঢালীর জনপদের নিরীহ মানুষের কাছ থেকে নানা ভাবে আর্থিক ফায়দা লুটে নেয়ার এন্তার অভিযোগ পাওয়া গেছে তার বিরুদ্ধে।
জানা যায়, প্রায় সারাক্ষন তিনি টাকার ধান্দায় এখান থেকে ওখানে ছুটে চলেন। প্রতি গ্রামে সোর্চের নামে তার রয়েছে অসংখ্য দালাল। মূলত এরাই নানা ভাবে অন্যের কাছ থেকে টাকা পয়সা হাতিয়ে নিতে তাকে সহযোগীতা করে। ভয় দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নিতে সিদ্ধান্ত তিনি। শ্রীরামপুর গ্রামের মৃত শহিদ হাজরার ছেলে আরিফ আহম্মেদকে মামলার ভয় দেখিয়ে ২ হাজার টাকা নেয়। এছাড়া গত বছর লকডাউনে অবসরে সন্ধ্যায় স্থানীয় সলুয়ার বিলে মৎস চাষিরা তাদের ঘেরে তাস খেললে সে অপরাধে মৎস্য চাষী দিপক কর্মকার সহ আরো তিন জনের কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: