করোনা লাইভ
আজকে আক্রান্ত : ১,৯৭৫ ◈ আজকে মৃত্যু : ২১ ◈ মোট সুস্থ্য : ৭,৩৩৪
প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

হলিউড সিনেমায় বুড়িগঙ্গা নদী

৯ এপ্রিল ২০২০, ১২:০৯:২০

হলিউড সিনেমায় বুড়িগঙ্গা নদী। ওপরে হেলিকপ্টার জ্বলছে, নিচে বয়ে যাওয়া শান্ত বুড়িগঙ্গা। ব্যস্ত সেতুর ধারে নদী রক্ষার শ্লোগান! এই মাসে নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেতে যাওয়া হলিউড মুভি ‘এক্সট্র্যাকশন’ এ দেখতে পাবেন ঢাকা ও বুড়িগঙ্গা নদীর এমন দৃশ্য। ছবিটির যে অফিসিয়াল ট্রেলার প্রকাশ হয়েছে, তারও বড় অংশজুড়ে রয়েছে বুড়িগঙ্গা। যে সেতুটি দেখা যাচ্ছে, সেখানে রয়েছে নদী বিষয়ক শ্লোগান- ‘নদী বাঁচলে বাঁচবে দেশ, ফিরিয়ে আনবো সোনার দেশ।

মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) ঢাকা শহরের প্রেক্ষাপট নিয়ে ৩ মিনিটের ট্রেলারটি অন্তর্জালে মুক্তি পেয়েছে। বুড়িগঙ্গা নদীর এদিক-ওদিক অনেক নৌকা। দু’পাশে দুটি লঞ্চ নোঙর করে আছে। ট্রেলারে ইরানি অভিনেত্রী গোলশিফতা ফারাহানির সংলাপে জানা গেছে, বাংলাদেশ ও ভারতের দুই মাদকসম্রাটকে উৎখাত করার মিশন এটি। ট্রেলারের ২৭ সেকেন্ড ও ১ মিনিট ৬ সেকেন্ডে বুড়িগঙ্গা নদী ও এর তীরের দৃশ্য দেখা যায়। কাকতালীয় ব্যাপার হলো, ১ মিনিট ২০ সেকেন্ডে গোলশিফতার মুখে জানানো হয়, শহরটি লকডাউন হয়ে আছে। ট্রেলারটি এমন একটা সময়ে মুক্তি পেলো যখন সত্যিই বাংলাদেশে লকডাউন চলছে!

গল্পে দেখা যাবে, ঢাকার একজন কারাবন্দি মাদকসম্রাটের ছেলেকে অপহরণ করা হয়। তাকে উদ্ধারের দায়িত্ব পায় নির্ভীক ভাড়াটে সৈন্য টাইলার রেক। এ চরিত্রে অভিনয় করেছেন অস্ট্রেলিয়ান অভিনেতা ক্রিস হেমসওয়ার্থ। মারভেল কমিকসের সুপারহিরো থর হিসেবে তার জনপ্রিয়তা দুনিয়াজুড়ে।

বুড়িগঙ্গার দৃশ্যগুলোর শুটিংয়ে ছবির একটি ইউনিট এসেছিল। অস্ত্র ও মাদক ব্যবসার অন্ধকার জগতকে ঘিরে অ্যাকশনে ভরপুর ছবিটির বাকি দৃশ্যধারণ হয়েছে ভারতের মুম্বাই ও আহমেদাবাদে। শুটিং ভারতে হলেও সেখানকার সেট তৈরি হয়েছে ঢাকা শহরের আদলে। যেখানে দেখা গেছে ঢাকার রিকশা, সিএনজি, বাস-ট্রাক, প্রাইভেটকার প্রভৃতি। ছবিটির প্রাথমিক নামও ছিল ‘ঢাকা’।

স্যাম হারগ্রেভের পরিচালনায় এতে আরও অভিনয় করেছেন ডেভিড হারবার, ভারতীয় অভিনেতা রণদীপ হুদা, পঙ্কজ ত্রিপঠিসহ অনেকে।

‘অ্যাভেঞ্জার্স: ইনফিনিটি ওয়ার’ ও ‘অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ডগেম’ ছবির পরিচালক ভ্রাতৃদ্বয় জো রুশো ও অ্যান্থনি রুশো প্রযোজনা করেছেন ‘এক্সট্র্যাকশন’। নেটফ্লিক্সে আগামী ২৪ এপ্রিল এটি মুক্তি পাবে।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: