বীরগঞ্জে দুর্গাপ্রতিমা তৈরিতে আগের মত ব্যস্ততায় নেই মৃৎ শিল্পীরা

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৫:১৩:৩৩

প্রদীপ রায় জিতু, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ॥- আগামী ২২ অক্টোবর শুরু হবে সনাতন ধর্মালম্বলীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। পূজার জন্য প্রতিমা তৈরি করতে এসময় পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের নতুনপাড়া, সনাতনপাড়া, বিষ্ণু মন্দির, শিমূল তলা কলিমন্দির ও সুজালপুর হরিবাসর পাড়াসহ পুরো উপজেলায় এসময় ব্যস্ততায় থাকার কথাছিলো মৃৎ শিল্পীদের। কিন্তু এ বছর দুর্গাপূজার আগেই (কোভিড-১৯) করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়েছে প্রতিমা শিল্পে, প্রতিমা তৈরির কারিগরদের চোখে মুখে সেই ছাপ স্পষ্টভাবে ফুটে উঠেছে। ঢিলেঢালা ভাবে অবসর সময় অতিবাহিত করছেন দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলায় প্রতিমা কারিগরেরা। বীরগঞ্জ উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের করোনাভাইরাস মেকাবেলায় নানান নির্দেশনা থাকায় পূজা ম-পগুলোতে এবার সাদাসিধাভাবে শারদীয় দুর্গাপূজা উদযাপনের সিদ্ধান্ত নেয়ায় বেশি দাম দিয়ে বড় বড় প্রতিমা তৈরি করছে না কোন ম-প। বীরগঞ্জ পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের শিমূলতলা মন্দিরের দুর্গাপ্রতিমা তৈরির কারিগর সাগর পাল বলেন, এই সময় আমাদের কোন ফুরসত থাকে না, এবার মহামারী করোনার কারণে বড় বড় প্রতিমা তৈরি করছে না ম-পগুলো, এ কারণে আমরা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত। গত বছর এই মন্দিরে ২৫/৩০ হাজার টাকায় প্রতিমা তৈরি করেছি, এবার মাত্র ১৫ হাজার টাকার মধ্যেই তৈরি করতে হচ্ছে। এপর্যন্ত কোনমতে ৩ টি পূজাম-পে কাজ করছি। কি আর করার বসে না থেকে টুকটাক করে প্রতিমা তৈরির কাজ করছি। বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ উপজেলা শাখার সভাপতি মহেশ চন্দ্র রায় বলেন, করোনা মোকাবেলায় কেন্দ্রের নির্দেশনা মেনে পূজা পরিচালনা করতে বলা হয়েছে ম-পগুলোতে, পূজা ম-পের সংখ্যা আগের মতোই ১৫৯টি হবে। কেন্দ্রের নির্দেশনা মেনে পূজা পরিচালনা করা জন্য বিশেষভাবে ম-পগুলোকে বলা হচ্ছে।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।