জাকারবার্গকে নিয়ে নতুন চলচ্চিত্র?

১৯ জানুয়ারি ২০১৯, ৪:৩৪:৩৯

ফেসবুক ও এর প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ এ সময়ের আলোচিত বিষয়। সাধারণত চলচ্চিত্র প্রযোজকেরা বাস্তব ঘটনা অবলম্বনে চলচ্চিত্র নির্মাণে কিছুটা সময় নেন। কিন্তু ভালো গল্প হাতের নাগালে পেলে এখন আর তাঁরা খুব বেশি অপেক্ষায় থাকতে চান না। এ রকম একটি উদাহরণ হচ্ছে ২০১০ সালে মুক্তি পাওয়া ‘দ্য সোশ্যাল নেটওয়ার্ক’ চলচ্চিত্রটি। ছবিটি ফেসবুক প্রতিষ্ঠার প্রাথমিক দিনগুলো ও ফেসবুক প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গকে ঘিরে তৈরি। এর চিত্রনাট্য লিখেছিলেন অ্যারন সরকিন। এতে অভিনয় করেছিলেন জেসি আইজেনবার্গ।

সম্প্রতি অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অ্যারন সরকিন বলেন, ‘দ্য সোশ্যাল নেটওয়ার্ক’ চলচ্চিত্রটির সম্ভাব্য সিক্যুয়েল নির্মাণের জন্য এর প্রযোজক স্কট রুডিন প্রস্তাব দিয়েছেন। এখনো বিষয়টি চূড়ান্ত হয়নি। তবে তিনি মনে করেন, এখনই ছবিটির সিক্যুয়েল তৈরির উপযুক্ত সময়। এর আগে ‘দ্য সোশ্যাল নেটওয়ার্ক’ ছবিটি বাণিজ্যিকভাবে সফল হওয়ার পাশাপাশি সমালোচকদেরও প্রশংসা পেয়েছিল।

সরকিন বলেন, ফেসবুক ও জাকারবার্গকে ঘিরে প্রথম ছবিটি মুক্তির পর অনেক মজার ঘটনা ঘটে গেছে, যা ছবিটির সিক্যুয়েলের বিষয়বস্তু হতে পারে। এর মধ্যে রয়েছে ফেসবুকের তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনাটি, যা কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা কেলেঙ্কারি নামে পরিচিত হয়ে উঠেছে। এ ছাড়া ২০১৬ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রাম কিনে নেওয়া ও তাদের প্রবৃদ্ধির মতো নানা বিষয় আছে। ‘দ্য সোশ্যাল নেটওয়ার্ক’–এর কাহিনি যেখানে শেষ হয়েছিল, সেখান থেকেই নতুন কাহিনি শুরু হতে পারে। তবে বিনোদনের জন্য তাতে কাল্পনিক ও নাটকীয় কিছু যুক্ত করা যেতে পারে।

সরকিন বলেন, এখনো যেহেতু বিষয়টি চূড়ান্ত নয়, তাই ছবি কবে আলোর মুখ দেখবে, তা বলা কঠিন। তবে ‘সোশ্যাল নেটওয়ার্ক’–এ পর ফেসবুক ঘিরে কী ঘটছে, তা সহজে বোঝার জন্য আমরা এর সিক্যুয়েল অবশ্যই চাইব।

দৈনিক আলোর প্রতিদিন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।